NOVOAIR

অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে লালমনিরহাটে

বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত বলেছেন, দেশের যুবক শ্রেণিকে দক্ষ ও কম্পিউটার জ্ঞানসমৃদ্ধ করে অ্যাভিয়েশনের ধারায় নিয়ে আসতে পারলে বাংলাদেশের জন্য পুরো বিশ্বের দ্বার খুলে যাবে। দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয় কার্যকর ভূমিকা রাখবে। দক্ষ বৈমানিক, বিমান প্রকৌশল, বিমান তৈরি এবং রক্ষণাবেক্ষণ ও মহাকাশ সম্পর্কিত সর্বস্তরের উচ্চশিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি উৎপাদনের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে এই বিশ্ববিদ্যালয়।

তিনি লালমনিরহাট বিমানবন্দর সংলগ্ন এলাকায় এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাসের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে বৃহস্পতিবার দুপুরে এ কথা বলেন। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ভিসি এয়ার ভাইস মার্শাল এএইচএম ফজলুল হকসহ বিমানবাহিনী ও জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, ২০১৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয় আইন পাস হয়। চলতি বছর ঢাকায় অস্থায়ী ক্যাম্পাসে ৯০ শিক্ষার্থী নিয়ে এর যাত্রা শুরু হয়। ২০২১ শিক্ষাবর্ষে লালমনিরহাটে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি শিক্ষা কার্যক্রম শুরুর প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসেবে অস্থায়ী ক্যাম্পাসের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হল বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠাতা ভিসি এয়ার ভাইস মার্শাল এএইচএম ফজলুল হক।

আরও খবর
Loading...