আকাশপথে যাত্রী কমেছে ৭০ ভাগ

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ কড়া নাড়ছে। করোনার দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতির শিকার এভিয়েশন খাত। মহামারীর কারণে শুরু থেকে এ পর্যন্ত ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণ করেছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।
করোনার প্রকোপ চলছেই।
এই ক্ষতি থেকে উত্তরণে স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নিয়েছে বেবিচক।

বিশ্বব্যাপী চলমান করোনার কারণে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটে যাত্রী চলাচলের হার আন্তর্জাতিক রুটে ৭০ শতাংশ ও অভ্যন্তরীণ রুটে ৩৫ শতাংশ কমেছে।
২০২৫ সালের মধ্যে আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ যাত্রী পরিবহনের হার কমায় বছরভিত্তিক টার্গেট নির্ধারণ করেছে বেবিচক।

সংস্থাটি এ-ও বলছে, ভাইরাসটি প্রতিনিয়ত রূপ পরিবর্তন করছে।
বর্তমান পরিস্থিতির ওপর ভিত্তি করে পরিকল্পনা করা হয়।
পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে বাস্তব অবস্থা বিবেচনায় নিয়ে কর্মপরিকল্পনা পরিবর্তন হতে পারে।

আরও খবর
Loading...