আবারও চালু হচ্ছে লন্ডন-তেহরান ফ্লাইট

planeচারবছর পর আবারও লন্ডন থেকে তেহরানে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করবে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ।

বিবিসি বলছে, যুক্তরাজ্য ও ইরানের মধ্যকার সম্পর্কের অবনতি হওয়ার ঘটনায় ২০১২ সাল থেকে দেশদুটির মধ্যে সরাসরি যাত্রীবাহী বাণিজ্যিক উড়োজাহাজ চলাচল বন্ধ থাকার পর পুনরায় তা শুরু হবে।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে ইরানের উপর থেকে বেশকিছু ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার ধারাবাহিকতায় এই বাণিজ্যিক উড়োজাহাজ চলাচল শুরু হতে যাচ্ছে।

২০১৫ সালে ইরানের রাজধানী তেহরানে পুনরায় ব্রিটিশ দূতাবাস চালু হয়।

ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ জানিয়েছে, সপ্তাহে ছয়দিন লন্ডনের হিথরো বিমানবন্দর থেকে ফ্লাইট পরিচালনা করবে তারা।

এই উদ্যোগের অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার রাতে বোয়িং ৭৭৭ মডেলের একটি উড়োজাহাজ তেহরানের উদ্দেশে উড়াল দেবে।

ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ ১৯৪৬ সালে প্রথম লন্ডন থেকে তেহরানে বাণিজ্যিক ফ্লাইট চালু করে ২০১২ সালে তা বন্ধ করে দেয়। ওই সময় সপ্তাহে তিনদিন দেশ দুটির রাজধানীর মধ্যে উড়োজাহাজ চলাচল করতো।

২০১১ সালে তেহরানে ব্রিটিশ দূতাবাস বন্ধ করে দেওয়ার একবছর পর ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ তাদের ইরানের সঙ্গে তাদের উড়োজাহাজ চলাচল বন্ধ করে দিয়েছিল।

ইরানের বিতর্কিত পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘটনায় ব্রিটিশ দূতাবাসে বিক্ষোভকারীরা হামলা চালানোর পর দেশটি থেকে দূতাবাস গুটিয়ে নিয়েছিল যুক্তরাজ্য।

২০১৫ সালে বিশ্বের ক্ষমতাধর ছয় দেশ যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, রাশিয়া, চীন ও জার্মানির সঙ্গে ইরান দীর্ঘমেয়াদী পরমাণু চুক্তি করার পর যুক্তরাজ্য তেহরানে পুনরায় দূতাবাস চালু করে।

এরআগে সাতবছর বন্ধ রাখার পর চলতি বছরের এপ্রিলে এয়ার ফ্রান্স তেহরানের সঙ্গে উড়োজাহাজ চলাচল পুনরায় চালু করে।

আরও খবর
Loading...