ঊর্মিলার পর কংগ্রেসে রাজপাল

ঊর্মিলার পর কংগ্রেসে রাজপাল।

দিল্লিতে রাহুল গান্ধীর বাসভবনে গিয়ে দেখা করার পর গত ২৮ মার্চ কংগ্রেসে যোগ দেন ঊর্মিলা মাতন্ডকর। ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে উত্তর মুম্বাই কেন্দ্রে তিনি কংগ্রেস থেকে প্রার্থী হচ্ছেন। এবার শোনা যাচ্ছে, বলিউডের অভিনেতা রাজপাল যাদবও নাকি লোকসভা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। গত বুধবার তিনি দিল্লি কংগ্রেসের সভানেত্রী শীলা দীক্ষিতের সঙ্গে তাঁর বাসায় গিয়ে দেখা করেছেন। তাঁদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। এরপর অনেকেই ধারণা করছেন, নিউ দিল্লির উত্তর-পূর্ব আসন থেকে কংগ্রেসের প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা আছে তাঁর। বিজেপি গুরুত্বপূর্ণ প্রার্থী মনোজ তিওয়ারিকে এই আসন থেকে মনোনয়ন দিয়েছে।

দিল্লি কংগ্রেসের ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে, প্রাথমিক পর্যায়ে শীলা দীক্ষিত ও রাজপাল যাদবের মধ্যে যে আলোচনা হয়েছে, তা থেকে ইতিবাচক কিছু হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

শীলা দীক্ষিতের বাসা থেকে বের হওয়ার পর সাংবাদিকদের রাজপাল যাদব বলেছেন, শীলা দীক্ষিত তাঁকে কংগ্রেস থেকে প্রার্থী হওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। তিনি নিজেও এ ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। শীলা দীক্ষিতের পর কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সঙ্গে তাঁর দেখা করার পরিকল্পনা আছে। কিন্তু লোকসভা নির্বাচনের প্রচারকাজে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী এখন খুব ব্যস্ত, তাই হয়তো কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার আগে তাঁদের দেখা হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।

এদিকে তিন মাসের কারাদণ্ড ভোগ করার পর গত ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ দিকে তিহার জেল থেকে মুক্তি পান রাজপাল যাদব। ঋণখেলাপির দায়ে তাঁকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেন দিল্লি হাইকোর্ট। ২০১০ সালে মুরলি প্রজেক্ট নামের একটি প্রতিষ্ঠান থেকে রাজপাল যাদব আর তাঁর স্ত্রী রাধা পাঁচ কোটি টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। হিন্দি সিনেমা ‘আতা পাতা লাপাতা’ তৈরির জন্য এই ঋণ নিয়েছিলেন তাঁরা। শর্ত ছিল, ২০১১ সালের ৩০ জুনের মধ্যে আট কোটি টাকা ফেরত দেবেন। কিন্তু শর্ত অনুযায়ী ওই টাকা তাঁরা ফেরত দেননি।

আরও খবর
Loading...