এবার খড়কুটো ভেসে আসছে সৈকতে

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে এবার ভেসে আসছে খড়কুটো, গাছের গুঁড়ি, কলাগাছসহ নানা উচ্ছিষ্ট বর্জ্য।
ভেসে আসা এসব বর্জ্যে হুমকির মুখে পড়েছে পর্যটন নগরী কক্সবাজারের সমুদ্র সৈকত।

এতে সৈকতের সৌন্দর্য্যহানির পাশাপাশি স্থানীয় দর্শনার্থীদের চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে সৈকত।
দ্রুত এসব বর্জ্য সরিয়ে নেবার অনুরোধ স্থানীয়দের। তবে সৈকতে বার বার এ ধরনের বর্জ্য ভেসে আসা নিয়ে চিন্তিত স্থানীয় প্রশাসন।

বুধবার (২৯ জুলাই) সরজমিনে ঘুরে ও কথা বলে জানা যায়, কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের নাজিরারটেক থেকে হিমছড়ি পর্যন্ত টন টন উচ্ছিষ্ট বর্জ্য ভেসে আসছে।
সৈকতে স্তুপ হয়ে পড়ে রয়েছে বর্জ্য। অনেক যায়গায় বিচ পরিচ্ছন্ন কর্মীরা বর্জ‌্য পরিষ্কার করেছেন।
তবে কিছুক্ষণের মধ‌্যেই আবার ভেসে আসা বর্জ‌্যে অপরিচ্ছন্ন হয়ে পড়ছে সৈকত।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে গত চার মাস ধরে সৈকতে দর্শনার্থীদের প্রবেশে কঠোর নিষেধাজ্ঞা ছিল। বুধবার (২৯ জুলাই) থেকে কিছুটা শিথিলতা লক্ষ্য করা যায়।
এ কারণে সৈকতে স্থানীয় দর্শনার্থীরা ভিড় করে। তবে বর্জ্যের কারণে সৈকত দর্শনার্থীদের চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সেই সাথে সৌন্দর্য্যহীন।

সৈকতে বেড়াতে আসা শহরের টেকপাড়ার বাসিন্দা কামরুল হাসান বলেন, ‘মঙ্গলবারও পুরো সৈকত ছিল পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন।
কিন্তু বুধবার বিকেলে এসে দেখি সৈকতের বালিয়াড়িতে নানা ধরনের বর্জ্য পড়ে আছে। যে কারণে বালিয়াড়িতে হাঁটা যাচ্ছে না। একই সাথে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে।’

আরও খবর
Loading...