এবার পূর্বঘোষণা ছাড়াই রাজশাহীতে বাস চলাচল বন্ধ

পূর্বঘোষণা ছাড়াই খুলনার পর এবার রাজশাহী থেকে দুই দফায় আটটি জেলায় বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বগুড়ায় মালিক সমিতির নেতার ওপর হামলার প্রতিবাদে এ সিদ্ধান্ত বলে জানান পরিবহন নেতারা।

এদিকে বিএনপি নেতারা বলছেন, মঙ্গলবার (২ মার্চ) দলটির বিভাগীয় সমাবেশকে কেন্দ্র করেই এ ধর্মঘট।

রাজশাহীর শিরোইল বাসস্ট্যান্ড চাঁপাইনবাবগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে বাস, অপেক্ষায় আছেন যাত্রীরা। হঠাৎ বাস বন্ধের ঘোষণা আসে। এ খবর জানতেন না কাউন্টার ম্যানেজাররাও। তাতে ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা। বিকল্প যানবাহনে গন্তব্যে রওনা হন অনেকেই।

ঢাকাসহ দূরের গন্তব্যে ছেড়ে যায় দু-একটি গাড়ি তবে সোমবার (১ মার্চ) দুপুরে দ্বিতীয় দফায় বন্ধ করা হয় আট জেলার বাস চলাচল। তাতে যাত্রীদের দুর্ভোগ ওঠে চরমে।

এদিকে বিএনপি নেতারা বলছেন, বাস চলাচল বন্ধ করাসহ নানাভাবে সমাবেশ বন্ধ করার চক্রান্ত চলছে।

বিএনপি নেতা রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেন, মঙ্গলবার রাজশাহীতে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে হবে। যতই বাধা দেয়া হোক না কেন। গাড়ি বন্ধ করা হলেও আমাদের লোকরা সমাবেশে আসবে।

তবে বাস মালিক শ্রমিক ইউনিয়নের নেতাদের দাবি, শ্রমিক নেতার ওপর হামলার পাশাপাশি নিরাপত্তার কারণে গাড়ি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে সময় সংবাদককে জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের নেতা মাহাতাব হোসেন চৌধুরী বলেন, আমাদের কর্মসূচি আগে থেকে দেয়া আছে। তারপরও আমাদের মালিক, শ্রমিক ও গাড়ির নিরাপত্তার জন্য গাড়ি বন্ধ রাখা হয়েছে।

পরিবহন নেতারা জানিয়েছেন, বগুড়ায় মালিক শ্রমিক নেতার ওপর হামলাকারীকে গ্রেফতার না হওয়া পর্যন্ত গাড়ি চলাচল বন্ধ রাখা হবে।

আরও খবর
Loading...