করোনার জেরে কর্মীদের বেতন কমানোর ঘোষণা বিমানসংস্থার

করোনাভাইরাস সংক্রমণের জেরে গোটা বিশ্বে বেসামরিক বিমান পরিবহণ ক্ষেত্র ভেঙে পড়েছে। বিমান সংস্থাগুলির আর্থিক লোকসান প্রতি দিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। এই অবস্থায় ভারতের বিমান সংস্থা ইন্ডিগো তাদের সমস্ত কর্মীর ৫ থেকে ২৫ শতাংশ বেতন কমানোর ঘোষণা করল। ইন্ডিগো সিইও রণজয় দত্ত বৃহস্পতিবার কর্মীদের জানিয়েছেন, বিমান সংস্থাটির খরচ কমাতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। একই পথে হেঁটে এয়ার ইন্ডিয়াও তাদের কর্মীদের ৫ শতাংশ বেতন কমানোর কথা বিবেচনা করছে।

ইন্ডিগোর সমস্ত কর্মীদের এক ই-মেইলে রণজয় দত্ত জানিয়েছেন, তিনি নিজে ২৫ শতাংশ বেতন কম নেবেন। সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও তার উপরে পদমর্যাদার উপরে সমস্ত এগজিকিউটিভের ২০ শতাংশ এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট ও পাইলটদের ১৫ শতাংশ বেতন কমবে। অন্যান্যদের ক্ষেত্রে বেতন ৫-১০ শতাংশ কমবে।

ইন্ডিগো সিইও বলেছেন, ‘হোম পে কমলে পরিবারের জন্য কী কঠিন অবস্থা হয়, তা আমরা জানি। কিন্তু, দুর্ভাগ্যজনক ভাবে আমাদের প্রত্যেকে যদি কিছু আত্মত্যাগ না করি, সে ক্ষেত্রে এই আর্থিক ঝড়ের মুখে আমাদের সংস্থার টিকে থাকা অসম্ভব।’

গত অর্থ বছরে কর্মীদের বেতন খাতে ইন্ডিগোর খরচ হয়েছে ৩,২১০ কোটি টাকা, যা সংস্থাটির মোট খরচের ১১ শতাংশ। রণজয় দত্তের এই ই-মেলের কয়েক ঘণ্টা আগেই ইন্ডিগোর উড়ান পরিচালনার প্রধান অসীম মিত্র পাইলটদের জানান, আগামী কয়েক সপ্তাহে সংস্থা কিছু ‘কঠিন সিদ্ধান্ত’ নেবে। তিনি পাইলটদের লিখিত ভাবে বলেন, ‘আর্থিক পরিস্থিতির উল্লেখজনক অবনতি ঘটেছে এবং এই প্রবল প্রতিকূল ঝঞ্ঝার আঁচ থেকে কোনও উড়ান সংস্থা মুক্ত নয়। এখনই কিছু কঠিন সিদ্ধান্ত নেওয়া জরুরি এবং আমরা একগুচ্ছ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বিবেচনা করছি যা আগামী কয়েক দিনের মধ্যে সকলকে জানিয়ে কার্যকর করা হবে।’

 

আরও খবর
Loading...