কী আছে ঢাকা-সিঙ্গাপুর রুটের এ৩৫০-৯০০ উড়োজাহাজে?

কী আছে ঢাকা-সিঙ্গাপুর রুটের এ৩৫০-৯০০ উড়োজাহাজে?

ঢাকা থেকে আঞ্চলিক গন্তব্যে এয়ারবাস এ৩৫০-৯০০ উড়োজাহাজ দিয়ে ফ্লাইট পরিচালনা করছে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনস। এর বিজনেস ক্লাস কেবিনে রয়েছে ১-২-১ বিন্যাসে ৪০ আসন। ফলে এটি হাঁটাচলার জন্য সুবিধাজনক। অন্যদিকে ইকোনমি ক্লাসে রয়েছে ২৬৩টি আসন। এখানকার আসন বিন্যাস হলো ৩-৩-৩।

এ৩৫০-৯০০ মডেলের এয়ারবাসে রয়েছে অত্যাধুনিক বিনোদন সিস্টেম। উড়োজাহাজটির নকশায় রয়েছে নতুন ইউজার ইন্টারফেস, যা যাত্রীদের নেভিগেশন অপশনসহ ভিন্নধর্মী ভ্রমণ অভিজ্ঞতা দেয়। ক্রিসফ্লাইয়ারের সদস্য ও বিজনেস ক্লাসের ভ্রমণকারীরা অতিরিক্ত ইন ফ্লাইট এন্টারটেনমেন্ট উপভোগের সুবিধা পাবেন। উড়োজাহাজটিতে ওঠার আগে ভ্রমণকারীরা সিঙ্গাপুর এয়ার মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে পছন্দানুযায়ী প্লে-লিস্ট বাছাই করতে পারবেন।

বিজনেস ক্লাসবিজনেস ক্লাস

সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসের নতুন এয়ারবাসে স্ব-নিয়ন্ত্রণে মাইক্রিসওয়ার্ল্ডের ইন-ফ্লাইট এন্টারটেনমেন্ট উপভোগ করতে পারেন ভ্রমণকারীরা। পছন্দমাফিক ও পূর্বের দেখা কন্টেন্ট অনুযায়ী বিনোদনমূলক কন্টেন্ট দেখা যাবে। ক্রিসফ্লাইয়ারের সদস্যরা কন্টেন্ট বুকমার্ক করে রেখে পুনরায় তা দেখতে পারবেন। এছাড়া কেবিনে ভ্রমণকালীন মেলে উচ্চগতির ওয়াই-ফাই সুবিধা। কারণ এ৩৫০-৯০০ এয়ারক্র্যাফটে আছে সিতাঅনএয়ারের ইনমারাসাত জিএক্স অ্যাভিয়েশনের ব্রডব্যান্ড কানেক্টিভিটি।

ঢাকা-সিঙ্গাপুর রুটে প্রতিদিন রাত ১১টা ৫৫ মিনিট হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে রওনা দেয় সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনসের এসকিউ ৪৪৭ ফ্লাইট। সিঙ্গাপুর থেকে প্রতিদিন রাত ৮টা ৩৫ মিনিটে সিঙ্গাপুর চাঙ্গি বিমানবন্দর থেকে ছেড়ে আসে এসকিউ ৪৪৬ ফ্লাইট।

বিজনেস ক্লাস

এছাড়া সপ্তাহের বুধ, বৃহস্পতি ও রবিবার ঢাকা থেকে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে রাত ৯টা ২৫ মিনিটে রওনা দেয় এসকিউ ৪৪৯ ফ্লাইট। এই তিন দিন চাঙ্গি বিমানবন্দর থেকে এসকিউ ৪৪৮ ছাড়ে বিকাল ৫টা ৪০ মিনিটে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে এ৩৫০-৯০০ উড়োজাহাজের উদ্বোধনী ফ্লাইট (এসকিউ৪৪৬)। এরপর ঢাকা থেকে এটি এসকিউ৪৪৭ নম্বর ফ্লাইট হিসেবে সিঙ্গাপুর যায়।

ইকোনমি ক্লাসইকোনমি ক্লাস

উদ্বোধনী ফ্লাইটের বোর্ডিং ঘোষণা দেন সিঙ্গাপুর এয়ারলাইনস বাংলাদেশের জেনারেল ম্যানেজার জর্জ রবার্টসন। তিনি বলেন, ‘৩৪ বছর ধরে বাংলাদেশ থেকে আমাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছি। দীর্ঘ সময়ে গ্রাহকদের জন্য উন্নত সেবা নিশ্চিতকরণসহ অধিক সংখ্যক ফ্লাইট চালু করতে প্রচুর বিনিয়োগ করেছি আমরা। তাই বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এয়ারবাস এ৩৫০-৯০০ এয়ারক্র্যাফট চালু করতে পেরে আমরা আনন্দিত। আমাদের বহরে যুক্ত হওয়া অত্যাধুনিক নতুন এই উড়োজাহাজ আকাশে গ্রাহকদের কাছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সুবিধা পৌঁছানোর সুযোগ করে দেবে। এজন্য প্রয়োজনীয় সবকিছুই আমাদের সর্বাধুনিক কেবিনে রয়েছে।’

ইকোনমি ক্লাসইকোনমি ক্লাস

ঢাকায় এ৩৫০-৯০০ উড়োজাহাজের যাত্রার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী। এছাড়া অনুষ্ঠানে অংশ নেন বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান, বাংলাদেশে নিযুক্ত সিঙ্গাপুরের কনসাল উইলিয়াম চিক, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এএইচএম তৌহিদ-উল আহসান, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের প্রধান মোশারফ হোসেন প্রমুখ।
ছবি: স্যাম চুই

আরও খবর
Loading...