চিকিৎসক রোবট ইতালিতে ডাক্তারদের আশা জোগাচ্ছে

ইতালিতে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ যুদ্ধে ডাক্তারদের সহায়তায় রোবট চিকিৎসক আশা জোগাচ্ছে।

নিবিড় পর্যবেক্ষণ ইউনিটে (আইসিইউ) থাকা ভাইরাসে আক্রান্ত আশঙ্কাজনক রোগীর পালস পরীক্ষা করে দেখছে এসব রোবট। কখনো আবার ওষুধ খাইয়ে দিচ্ছে।

ইতালির ভ্যারেসে হাসপাতালে কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসা শুরু করেছে ছয়টি রোবাট। দেশটিতে আশার আলো দেখাচ্ছে এসব চিকিৎসক রোবট। এর ফলে কোভিড-১৯ রোগীর পাশাপাশি বেঁচে যাচ্ছে চিকিৎসকদের জীবনও। এতে আনন্দ-উচ্ছাস প্রকাশ করছেন ডাক্তার-নার্সরা।

মহামারীবিরোধী লড়াইয়ে বিভিন্ন দেশেও শুরু হয়েছে রোবটের ব্যবহার। ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে আক্রান্ত রোগীদের কাছে খাবার, ওষুধ ও অন্যান্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছে অত্যাধুনিক এ প্রযুক্তি।

করোনার কারণে ইতালি এখন মৃত্যুপুরী। কিন্তু ইতালীয়দের জন্য এই মুহূর্তে সবচেয়ে বেদনার বিষয় হচ্ছে, করোনার রোগীদের বাঁচাতে গিয়ে মারা গেছেন বহু ডাক্তার-নার্স।

দেশটির চিকিৎসা সংগঠনগুলোর হিসেবে, শুক্রবার পর্যন্ত অন্তত ৭০ জন নার্স-চিকিৎসক প্রাণ হারিয়েছেন। রোবটের মতো উন্নত সুরক্ষা ব্যবস্থা থাকলে তাদের মরতে হতো না।

শেষ পর্যন্ত বহুল কাঙ্ক্ষিত সেই রোবট হাতে পেয়েছেন ইতালির ডাক্তাররা। সুইজারল্যান্ড সীমান্তবর্তী দেশটির ভ্যারেসে হাসপাতালে ইতিমধ্যে এসে পৌঁছেছে হালকা-পাতলা গড়নের ছয়টি রোবট।

এতে হাসি ফুটেছে হাসপাতালটির নার্স ও ডাক্তারদের মুখে। হাসি দেখা যাচ্ছে রোগীদের ঠোঁটের কোণেও। এতদিনে নিজেদের কয়েকজন প্রকৃত বন্ধুকে কাছে পেয়ে তাদের সঙ্গে সেলফি উঠাতেও ভুলছেন না চিকিৎসকররা।

এদিকে পৌঁছার পরপরই হাসপাতালের পুরো চিকিৎসার দায়িত্বই যেন হাতে তুলে নিয়েছে রোবটগুলো। চাকার ওপর ভর করে পুরো হাসপাতালজুড়ে দৌড়ে বেড়াচ্ছে তারা। কখনও আইসিইউতে রোগীর পালস তথা হৃদকম্পন চেক করছে। কখনও থার্মাল মেশিনটা হাতে নিয়ে তাপমাত্রাটা মাপছে।

তবে তাদের আসল দায়িত্বটা হল, সংক্রমণ ঠেকানো ও আক্রান্ত হওয়া থেকে ডাক্তার ও নার্সদের রক্ষা করা।

আরও খবর
Loading...