জার্মানিতে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ

জার্মানিতে পুনরায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। গত বুধ এবং বৃহস্পতিবার দুই দিনে দুই হাজারের অধিক মানুষ প্রতিদিন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দেশটিতে ২১৭৭ জন মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন; যা ২৩ এপ্রিলের পর সবচেয়ে বেশি। এপ্রিল মাসের পর থেকে জার্মানি করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রাখতে সক্ষম হয়েছিল। এখন আবার তা ঊর্ধ্বমুখী হওয়ায় উদ্বেগ বাড়ছে সব মহলে।

সম্প্রতি বার্লিনে এক সংবাদ সম্মেলনে জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেনস স্পান এবং গবেষণা মন্ত্রী আনিয়া কার্লিকজেক জানিয়েছেন, সরকার আশা করছে আগামী বছরের শুরুর দিকে জনসংখ্যার একটি অংশের জন্য কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে। সংবাদ সম্মেলনে উভয় মন্ত্রী বলেছেন, ঝুঁকিপূর্ণ পথ বেঁছে নেয়া হবে না। আমরা নিরাপদ ও কার্যকর ভ্যাকসিন চাই সেক্ষেত্রে প্রথমটি হতে হবে এমন কোনো কথা নেই।

করোনভাইরাস ভ্যাকসিন আবিষ্কারের জন্য জার্মান সরকার ৮৯০ মিলিয়ন ডলারের একটি বিশেষ গবেষণা তহবিল বরাদ্দ করেছে; যা মূলত জার্মানিতে ভ্যাকসিন আবিষ্কারে নিয়োজিত বায়োএনটেক, কিউরভ্যাক এবং আইডিটি বায়োলজিকা এ তিনটি প্রতিষ্ঠানকে সম্ভাব্য ভ্যাকসিন গবেষণা খাতে খরচ করার জন্য দেয়া হয়েছে।

জার্মানিতে এখন পর্যন্ত প্রায় ২ লাখ ৭১ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন; যার মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ লাখ ৪১ হাজার ৩০০ মানুষ। আর করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন ৯ হাজার ৪৬২ জন।

আরও খবর
Loading...