NOVOAIR

ডানা মেলার অপেক্ষায় ৭৩৭ ম্যাক্স

৭৩৭ ম্যাক্স জেট বিমান নিয়ে গত দুই বছর কম ভোগান্তি পোহাতে হয়নি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উড়োজাহাজ নির্মাতা বোয়িংকে।
ভয়াবহ দুটি দুর্ঘটনার তদন্ত, আকাশসেবা সংস্থাগুলোর আস্থা হারানো ও বৈশ্বিক নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হওয়ায় জেটগুলো শেষ পর্যন্ত গ্রাউন্ডেড রাখতে বাধ্য হয় তারা।
তবে দীর্ঘ অচলাবস্থার পর অবশেষে কিছুটা স্বস্তির বাতাস পেতে শুরু করেছে বোয়িং।
যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফএএ) বোয়িংয়ের ৭৩৭ ম্যাক্স উড়োজাহাজগুলোকে ফের উড্ডয়নের অনুমতি দিয়েছে। খবর রয়টার্স।

২০১৮ সালে মাত্র পাঁচ মাসের মধ্যে ইন্দোনেশিয়া ও ইথিওপিয়ায় দুটি ৭৩৭ ম্যাক্স বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনা ঘটে, যাতে ৩৪৬ জনের প্রাণহানি ঘটে।
এর জেরে পরের বছর বেশ কয়েক দফা তদন্তের মধ্য দিয়ে যেতে হয় বোয়িংকে।
এমনকি ওই দুটি দুর্ঘটনার কারণে বৈশ্বিক এভিয়েশন খাতে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বস্থানীয় ভূমিকাই হুমকির মুখে পড়ে যায়।
বোয়িংকেও প্রায় ২ হাজার কোটি ডলারের লোকসান গুনতে হয়।

বছর দুয়েক আগের ওই ঘটনার পর ৭৩৭ ম্যাক্স জেটগুলোকে প্রায় ২০ মাস বসিয়ে রাখতে বাধ্য হয় বোয়িং।
বাণিজ্যিক আকাশসেবা খাতের ইতিহাসে আর কোনো মডেলের উড়োজাহাজকে এত দীর্ঘ সময় গ্রাউন্ডেড রাখা হয়নি।

আরও খবর
Loading...