দর্শককে গালি দিয়ে তেড়ে এলেন বেন স্টোকস

দর্শককে গালি দিয়ে তেড়ে এলেন বেন স্টোকস।

মাঠে শুধু ব্যাটে-বলে নয়; নানা রকম মন্তব্য করে আলোচনায় আসেন ইংল্যান্ড দলের অলরাউন্ডার বেন স্টোকস।

এবার এমনই এক কাণ্ড করে তুমুল সমালোচিত হলেন তিনি। যার জন্য ক্ষমাও চাইতে হলো তাকে।
চলমান জোহানেসবার্গ টেস্টেই বিতর্কিত কর্মকাণ্ড করে সমালোচিত হলেন স্টোকস।
পরিচ্ছন্ন খেলা ক্রিকেটে গ্যালারির দর্শককে গালি দিয়ে বসলেন স্টোকস।
এদিন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে মাত্র ২ রানে আউট হয়ে মানসিকভাবে ক্ষুব্দ ছিলেন স্টোকস।
সাজঘরে ফেরার পথে গ্যালারি থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার কয়েকজন সমর্থন কিছু একটা বলেন স্টোকসকে উদ্দেশ্য করে।
মেজাজ হারান এই বিশ্বকাপ জেতানো অলরাউন্ডার। ড্রেসিংরুমের সিঁড়ি বেয়ে ওঠার আগে দর্শকদের দিয়ে ধেয়ে গেলেন তিনি। এতেই রাগ কমেনি তার। সেই দর্শকদের গালিও দিলেন।
আর টিভি ক্যামেরায় বেন স্টোকসের সেই আচরণের দৃশ্য ধরা পড়ে।
অবশ্য এমন আচরণের জন্য ক্ষমাও চান স্টোকস।
দর্শকদের সঙ্গে কোনোভাবেই ওই ধরনের আচরণ ঠিক হয়নি স্বীকারও করেছেন স্টোকস।
২৮ বছর বয়সী এই তারকা বলেন, ‘আউট হওয়ার পর টিভি ক্যামেরায় দৃশ্যে যেটি ধরা পড়েছে, সেটির জন্য আমি ক্ষমা চাইছি। আমি স্বীকার করছি যে আমার ভুল হয়েছে। আমার থেকে এমন অপেশাদার আচরণ আশা করা যায় না।
স্টোকস যোগ করেন, দক্ষিণ আফ্রিকা দলের ওই দর্শকদের সঙ্গে যেভাবে আমি কথা বলেছি, তার জন্য তাদের কাছে ক্ষমা চাইছি। সে সময় সরাসরি সম্প্রচারে টিভির সামনে বসে থাকা বিশ্বের সব তরুণ ভক্তের কাছেও ক্ষমা চাইছি।’
ক্ষমা ‍চাইলেও শাস্তির হাত থেকে রেহাই পাচ্ছেন না স্টোকস। আইসিসির আচরণবিধির ধারা অনুযায়ী, ম্যাচ চলাকালীন বাজে আচরণ করায় ম্যাচ ফির ৫০ শতাংশ জরিমানা গুণতে হচ্ছে স্টোকসকে। এর সঙ্গে ২ ডেমেরিট পয়েন্ট যোগ হতে পারে ক্যারিয়ারে।
স্টোকসের সেই আচরণ বিষয়ে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) ডিরেক্টর অব ক্রিকেট অ্যাশলে জাইল বলেছেন, ‘ স্টোকসের পক্ষ থেকে ওই ধরনের ব্যবহার কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। তার আচরণ সত্যিই হতাশ করেছে আমাদের।’

আরও খবর
Loading...