নাগরিকত্ব আইন নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্কে রবি শাস্ত্রী

নাগরিকত্ব আইন নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্কে রবি শাস্ত্রী।

ভারতে বিতর্কিত সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে আন্দোলন তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে। তবে এ নিয়ে সবাইকে ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রী।

ভারতীয় এক টিভি চ্যানেলে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, সমালোচিত এ আইনের মধ্যে আমি অসংখ্য ইতিবাচক দিক দেখতে পাচ্ছি।

৫৭ বছর বয়সী ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব মনে করেন, নিশ্চয়ই ভেবে-চিন্তে এ আইন চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ নিয়ে তিনি আত্মবিশ্বাসী।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে ভারতের বেশ কয়েকটি প্রদেশে আন্দোলন চলছে। প্রতিবাদে ফুঁসে উঠেছেন সংখ্যালঘুরা। শুরু থেকে এ নিয়ে সোচ্চার সাধারণ জনতাও।

ইতিমধ্যে অনেক জায়গায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবু তাদের থামানো যাচ্ছে না। আন্দোলন স্তিমিত করতে পারছে না তারা।

এমন পরিস্থিতিতে শাস্ত্রীর মন্তব্যের পর দেশজুড়ে বিতর্কের ঝড় বইতে শুরু করেছে। আরো উত্তাল হয়ে উঠেছে গোটা দেশ। বিক্ষোভ-সমাবেশ অব্যাহত আছে। অধিকাংশই তার বক্তব্যের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন।

শাস্ত্রী বলেন,সিএএ নিয়ে তৈরি হওয়া পরিস্থিতির দিকে তাকিয়ে আমি নিজেকে একজন ভারতীয় হিসেবে ভাবছি। আমাদের দলেও জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সব ধরনের লোক আছে। কিন্তু সবকিছুর ঊর্দ্ধে হচ্ছে আমরা ভারতীয়। আমি সবাইকে ধৈর্য ধারণ করার কথা বলব। কারণ, এ আইনের মধ্যে অনেক ইতিবাচক দিক দেখতে পাচ্ছি।

তবে কি ধরনের ইতিবাচক দিক দেখতে পাচ্ছেন সেই ব্যাপারে কোনো কিছু জানাননি তিনি।

ভারতীয় কোচ বলেন,আমি নিশ্চিত সবকিছু ভেবে-চিন্তে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আইনটি নিয়ে এখনো কিছু কাজ করা দরকার। ভারতীয়দের স্বার্থে অর্থাৎ জনস্বার্থেই এটা করবে তারা। আমি একজন ভারতীয় হিসেবেই কথা বলছি।

এখন পর্যন্ত মুসলিমবিদ্বেষী আইন নিয়ে বেশ কয়েকজন ভারতীয় ক্রীড়াবিদ মুখ খুলেছেন। বেশিরভাগই সরকারের পক্ষে মত দিয়েছেন। অনেকে আবার কোনো মন্তব্যও করতে চাননি। সেক্ষেত্রে শাস্ত্রী ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন বৈকি।

আরও খবর
Loading...