নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় কাতার এয়ারওয়েজকে অসন্তুষ্টি পত্র দেবে বেবিচক

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় কাতার এয়ারওয়েজকে অসন্তুষ্টি পত্র দেবে বেবিচক। আগের দিন সিভিল এভিয়েশন চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান ঘোষনা দিয়েছিলেন, কোন এয়ারলাইন্স ইউরোপ থেকে যাত্রী নিয়ে আসলে তাদের অবতরণের অনুমতি দেয়া হবে না। এই প্রেক্ষাপটে ৯৬ জন যাত্রী নিয়ে কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইট  বাংলাদেশের আকাশে আসে বিকাল সাড়ে ৪টায়। এরপর আকাশ থেকে টাওয়ারের কাছে বার বার ল্যান্ডিংয়ের অনুমতি চাইতে থাকেন। রাডার থেকে বিষয়টি সিভিল এভিয়েশনের শীষর্ কর্মকর্তাদের কাছে জানানো হয়।

বেবিচক কতৃপক্ষ টাওয়ারকে জানিয়ে দেয় অনুমতি দেয়া হবে না, ফ্লাইটটিকে ফেরত চলে যাবার নির্দেশনা দেয়া হয়। কিন্তু আকাশে আধ ঘন্টা কালের বেশি সময় ভাসমান  থেকে  জানানো হয় ফ্লাইটে মুমুর্ষ রোগী আছেন, বেশ কয়েকজন যাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। এই অবস্থায় মানবিক দিক বিবেচনা করে তাদের অবতরণের অনুমতি দেয়ার জন্য ফ্লাইট থেকে রাডারকে জানানো হয়।

এক পর্যায়ে মানবিক অবস্থা বিবেচনা করে তাদের অবতরণের অনুমতি দেয়া হয়। শর্ত দেয়া হয় প্রত্যেক যাত্রীকে অবশ্যই হজ ক্যাম্পে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে  থাকতে হবে। অনুমতি পাবার পর কাতার এয়ারওয়েজের ফ্লাইটটি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে অবতরণে করে।

এয়ারলাইন্সটির কিউআর-৬৩৪ ফ্লাইটটি ইতালির ৬৮জনসহ জার্মানি ও ইউরোপের অন্যান্য দেশের ৯৬ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকায় আসছে।

ফ্লাইটটি আজ সোমবার (১৬ মার্চ) সন্ধ্যায় সাড়ে ৬টার দিকে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবে। বিমানবন্দরের একাধিক সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে রবিবার (১৫ মার্চ) বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ সংবাদ সম্মেলন করে জানিয়েছিল, সোমবার দুপুর ১২টা থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত লন্ডন বাদে ইউরোপ থেকে যাত্রী আনতে পারবে না কোনও এয়ারলাইন্স। যদি কোনও এয়ারলাইন্স এরপরও যাত্রী নিয়ে আসে তবে তাদের খরচেই ফেরত পাঠানো হবে।

এই ফ্লাইটের যাত্রীদের ফেরত পাঠানো হবে কিনা জানতে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান বলেন, আমরা ইউরোপ থেকে যাত্রী আনতে নিষেধ করেছিলাম। এই ফ্লাইটটি যাত্রী নিয়ে আসার জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমতি চায়, মন্ত্রণালয় অনুমতি দিয়েছে। সিভিল এভিয়েশন থেকে কাতার এয়ারওয়েজের প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়েছে। তাদের দেশের সিভিল এভিয়েশনকেও এ ব্যাপারে অসন্তোষের কথা জানাবো। এরপর আর কোনও ফ্লাইটকে কোনোভাবেই নামতে দেওয়া হবে না।

এদিকে এই ফ্লাইটের ইউরোপীয় যাত্রীদের হজ ক্যাম্পে নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিমানবন্দরের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ। তিনি বলেন, তাদের হজ ক্যাম্পে নিয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। তাদের উপসর্গ না থাকলে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

আরও খবর
Loading...