পাকিস্তান থেকে কাতার এয়ারওয়েজে ভ্রমণে করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক

পাকিস্তানের যাত্রীদের জন্য করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করেছে কাতার এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষ।
ভ্রমণের জন্য ফ্লাইটের ৭২ ঘণ্টা আগে তাদেরকে অবশ্যই করোনা পরীক্ষার নেগেটিভ রিপোর্ট উপস্থাপন করতে হবে। সোমবার থেকে (১৩ জুলাই) নতুন
এ পদক্ষেপ কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন কাতার এয়ারওয়েজের মুখপাত্র। প্রতিষ্ঠানটির পাঠানো ইমেইলকে উদ্ধৃত করে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ এ তথ্য জানিয়েছে।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, পাকিস্তানে এখন পর্যন্ত আড়াই লাখেরও বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।
এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ২৬৬ জনের। পাকিস্তানের ইসলামাবাদ, করাচি, লাহোর ও পেশাওয়ার এ চার শহরে বর্তমানে ফ্লাইট পরিচালনা করছে কাতার এয়ারওয়েজ।

কোম্পানিটির মুখপাত্র জানিয়েছেন, যাত্রীদেরকে নিজ খরচে করোনা পরীক্ষা করাতে হবে এবং সে রিপোর্ট জমা দিতে।
তবে ১২ বছরের কম বয়সী যেসব শিশু অভিভাবকের সঙ্গে ভ্রমণ করবে, তাদের ক্ষেত্রে এ নিয়ম আরোপিত হবে না।

গত জুনে পাকিস্তান থেকে দক্ষিণ কোরিয়া ও হংকংয়ে যাওয়া যাত্রীদের মধ্যে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছিল।
এ ঘটনায় পাকিস্তানের সঙ্গে বিমান চলাচল বন্ধ রেখেছে বেশ কয়েকটি এয়ারলাইন্স কোম্পানি।
সাময়িকভাবে ফ্লাইট চলাচল বন্ধ রেখেছিল এমিরেটস এয়ারলাইন্সও।
গালফ নিউজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত সপ্তাহ থেকে তারা আবার তিনটি শহরে ফ্লাইট চলাচল শুরু করেছে।

আরও খবর
Loading...