পাঞ্জাবে ঘর থেকে বের হলেই ঢোকানো হচ্ছে স্টেডিয়ামের ‘খোঁয়াড়ে’

ভারতের পাঞ্জাবে লক ডাউন আইন অমান্য করলে পুলিশ অভিনব কাজ করছে । অমান্যকারীদের ধরে এনে আটকে রাখা হচ্ছে চণ্ডীগড় স্টেডিয়ামে।

ভারতে এ মুহূর্তে চলছে ২১ দিনের লক ডাউন। এই দিনগুলিতে মানুষ যেন বাড়িতে থাকে, সেটাই কড়াকড়িভাবে চেষ্টা করে যাচ্ছে ভারতের বিভিন্ন রাজ্য সরকার। এর মধ্যেও আইন অমান্যের অনেক ঘটনা ঘটেছে।

‘সেক্টর ১৬’ নামে পরিচিত এই স্টেডিয়াম বাংলাদেশের ক্রিকেটের সঙ্গেও জড়িয়ে আছে। বিশেষ করে বাংলাদেশের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু এই স্টেডিয়ামেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দেশকে প্রথম নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। বাংলাদেশকে যে দুটি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন মিনহাজুল তার একটি এ মাঠেই। করোনার এই সময় এ মাঠটিকেই লকডাউন অমান্যকারীদের জন্য ‘খোঁয়াড়’ বানানো হয়েছে।

পাঞ্জাবে লক ডাউন না মানলে পুলিশ গ্রেপ্তার করছে অমান্যকারীকে। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারা অনুযায়ী প্রাথমিক প্রতিবেদন দিয়ে তাকে সেক্টর-১৬ স্টেডিয়ামে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এই মাঠে খেলেই বড় হয়েছেন কিংবদন্তি কপিল দেব, হরভজন সিং, যুবরাজ সিংদের মতো ক্রিকেটাররা। পরবর্তীতে মোহালিতে নতুন স্টেডিয়াম তৈরি হলে এই সেক্টর ১৬র এই স্টেডিয়াম চাহিদা হারায়। কিন্তু এখনও এই মাঠে ক্রিকেট খেলেন নবীনরা।

আরও খবর
Loading...