ফ্রান্সে নতুন করে রেস্তোরাঁ বন্ধের নির্দেশে মালিকদের বিক্ষোভ

কভিড ১৯ সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে ফ্রান্সে নতুন করে রেস্তোরাঁ ও বার বন্ধের পাশাপাশি বিধিনিষেধ জারি করেছে দেশটির সরকার। এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ফরাসি শহর মার্সেইয়ে স্থানীয় সময় শুক্রবার বিক্ষোভ করেছেন রেস্তোরাঁ ও বারের মালিকরা। তাদের দাবি, নতুন করে এ বন্ধের নিদের্শনা তাদের চিরকালের জন্য ব্যবসা গুটিয়ে নিতে বাধ্য করবে। খবর এএফপি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী অলিভিয়ার ভেরান মার্সেই ও এর আশপাশের অঞ্চলে রেস্তোরাঁ বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন। এর মূলে রয়েছে হঠাৎ করেই ভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি। এছাড়া সোমবার থেকে প্যারিস ও অন্য শহরে রাত ১০টা থেকে বার বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কর্তৃপক্ষ এ পদক্ষেপের মধ্য দিয়ে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের আশা করলেও সমালোচকরা বলছেন যে এর ফলে ভয়াবহ আর্থিক ঝুঁকির মধ্যে পড়তে হবে।

প্যাট্রিক লেবোরাসে নামে এক রেস্তোরাঁ মালিক বলেন, আমাদের আর কোনো উপায় নেই। লকডাউন শেষে আমরা মাত্রই কিছুটা হলেও ব্যবসায় ফিরতে শুরু করেছি। এখন এ বন্ধের নির্দেশ পুরো অগ্রগতি থামিয়ে দেবে।

শুক্রবার দ্য কমার্শিয়াল কোর্টহাউজের বাইরে বিক্ষোভ চলাকালে দ্য রিজিওনাল হসপিটালিটি অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট বার্নার্ড মার্টি বলেন, সরকারের নতুন সিদ্ধান্তের ফলে হয়তো আমাদের সবাইকে এখানে এসেই দেউলিয়াত্বের জন্য আবেদন করতে হবে। এ সময় বিক্ষোভকারীরা ‘স্টে ওপেন, ডোন্ট ক্লোজ’ স্লোগান দিতে থাকেন। একই সঙ্গে বিক্ষোভকারীরা ভেরানের নামে দুয়োধ্বনি দিতে থাকেন।

আরও খবর
Loading...