বন্ধ হয়ে গেল পাইলট গড়ার দেশের সর্ববৃহৎ ফ্লাইং একাডেমি

বন্ধ হয়ে গেল পাইলট গড়ার দেশের সর্ববৃহৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এরিরাং ফ্লাইং স্কুল।
রোববার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্লাস বন্ধ ঘোষণা করে ফ্লাইং স্কুলটি।

স্কুলের শিক্ষার্থীরা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। একজন শিক্ষার্থী জানান, আমাদের ফোন করে প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।
এছাড়াও আমরা অনেকের অগ্রীম টাকা দেয়া ছিল। প্রতিষ্ঠানে গিয়ে সেই টাকা বুঝে নেয়ার কথাও জানিয়েছে তারা।

এরিরাং ফ্লাইং স্কুলের একজন কর্মকর্তা বলেন, এটি দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠান। গতকাল হঠাৎ করে সেখান থেকে সিইও জানালেন যে,
‘অনিবার্য কারণবশত’ স্কুল বন্ধ থাকবে।

গত কয়েকবছরে এরিরাং ফ্লাইং স্কুল থেকে মোট ১০০’র বেশি পাইলট বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সসহ বেসরকারি সব এয়ারলাইন্সে কর্মরত আছেন।
বর্তমানে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী এই স্কুলে আকাশে উড়তে শিখছিল।

দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক শিল্প গ্রুপ ইয়াংওয়ানের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান এরিরাং ফ্লাইং স্কুল।
২০১০ সালে ফ্লাইং স্কুল প্রতিষ্ঠার অনুমতি পায়।
চট্টগ্রামের কোরিয়ান ইপিজেডের প্রকৃতির লীলাভূমি ও আধুনিক সুযোগ-সুবিধার এক অপূর্ব সম্মিলনের মধ্যে এই হবু বৈমানিকদের প্রশিক্ষণ ক্যাম্প গড়ে তোলা হয়েছিল।

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সীমানার মধ্যেও রয়েছে হাতে-কলমে বিমান চালনা শেখার আরেকটি কেন্দ্র।

ইয়াংওয়ান গ্রুপের মালিকানায় এরিরাং এভিয়েশন নামের একটি কোম্পানি রয়েছে।
এই কোম্পানিটি বর্তমানে করপোরেট ফ্লাইট, চার্টার ফ্লাইট ও এয়ার অ্যাম্বুলেন্স সেবা দিচ্ছে।

আরও খবর
Loading...