বিমানবন্দর থেকে শাজাহান খানের মেয়েকে ফেরত

করোনা নিয়েই লন্ডন যাত্রার চেষ্টা

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে লন্ডন যেতে বিমানবন্দরে আসলেও এক যাত্রী করোনা পজিটিভ থাকায় তাকে বিমানবন্দর থেকে ফেরত পাঠানো হয়েছে। রবিবার (২৬ জুলাই) সকালে ঐশী খান নামের ওই যাত্রীকে আটকে দেয় ইমিগ্রেশন পুলিশ। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক বিমানবন্দরের একাধিক কর্মকর্তা নিশ্চিত করেছেন ওই যাত্রী সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খানের মেয়ে।

রবিবার (২৬ জুলাই) সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমানের লন্ডন ফ্লাইটের যাত্রী ছিলেন ঐশী খান। সূত্র জানায়, বাংলাদেশ থেকে বিদেশ যেতে সকল যাত্রীকে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট বাধ্যতামূলক করা হয়। তিনি করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখালেও ইমিগ্রেশন পুলিশ অনলাইনে চেক করে দেখেন তিনি করোনা পজিটিভ।

বিমানের উপ-মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার বলেন, ‘করোনা পজিটিভ থাকায় লন্ডন ফ্লাইটের এক যাত্রীকে ফেরত দিয়েছে ইমিগ্রেশন পুলিশ।’

সূত্র জানায়, বিমানবন্দরে যাত্রীদের করোনা সার্টিফিকেট পরীক্ষা করে বিমান বন্দরের স্বাস্থ্য বিভাগ। সার্টিফিকেট পরীক্ষা শেষে যাত্রীরা চেক ইন সম্পন্ন করেন। তবে ঐশী খান বিমানবন্দরের ভিআইপি গেট ব্যবহার করে বিমানবন্দরে প্রবেশ করেন। সেখান থেকে সরাসরি ইমিগ্রেশনে চলে যান। ইমিগ্রেশনে তাকে চেক করলে ধরা পড়ে তিনি করোনা পজিটিভ। পরবর্তীতে নিশ্চিত হওয়ার জন্য বিমানবন্দরের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা তার সার্টিফিকেট পরীক্ষা করে নিশ্চিত হন তিনি করোনা পজিটিভ।

সহকারী বিমানবন্দর স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ড. জহির ইসলাম বলেন, ‘ইমিগ্রেশন থেকে আমাদের জানানো হয় একজন ভিআইপি গেট ব্যবহার করে এসেছেন, তিনি করোনা পজিটিভ। পরবর্তীতে আমরাও অনলাইনে চেক করে নিশ্চিত হই তিনি পজেটিভ। এই কারণে আর তাকে ফ্লাইটে যেতে দেওয়া হয়নি।’

এ প্রসঙ্গে হযরত শাহ্জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এএইচএম তৌহিদ উল-আহসান বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিমানবন্দরে স্বাস্থ্য বিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করা হয়। আমাদের কাজই হচ্ছে কেউ যেনও পজিটিভ হয়ে ফ্লাইটে যেতে না পারেন। এ কারণে একজন যাত্রীকে লন্ডন ফ্লাইটে যেতে দেওয়া হয়নি।’

সুত্র – বাংলা ট্রিবিউন

আরও খবর
Loading...