বিমানের কিছু অনিয়ম প্রতিরোধে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। সংসদে মাহবুব আলী

বেবৃহস্পতিবার (৩০ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তরে সংসদ সদস্য আনোয়ার হোসেন খানের প্রশ্নের জবাবে পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসে কিছু অনিয়ম আছে। তবে তা প্রতিরোধে ইতোমধ্যে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।
এসময় তিনি ১২টি পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন।

আনোয়ার হোসেন খানের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, জানুয়ারি ২০১৯ থেকে ডিসেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত সময়ে যাত্রী পরিবহন করে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ৪ হাজার ৩০৫ কোটি টাকা আয় করেছে। এ সময় লাভ হয়েছে ৪৬০ কোটি টাকা।

সরকারি দলের মুহিবুর রহমানের প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক বিমানবাহিনীর আধুনিকায়নে সরঞ্জাম কেনার উদ্যোগের কথা জানান, ২০১৯-২০ অর্থবছরে বিমানবাহিনীকে আরও গতিশীল, যুগোপযোগী ও আধুনিকায়নের লক্ষ্য ১৬টি মাল্টি রোল কমব্যাট এয়ারক্রাফট (এমআরসিএ), ৮টি অ্যাটাক হেলিকপ্টার, ৩টি ভিভিআইপি হেলিকপ্টার, ২টি এয়ার ডিফেন্স রাডার ইউনিট, ২৪টি প্রাইমারি ট্রেইনার এসি, ২টি লাইট এসি, একটি কে-৮ ডব্লিউ সিম, ৪টি এমআরএপি ভ্যাকেল, ১টি এডব্লিউ-১১৯ সিম, ২টি কাউন্টার ড্রোন সার্ভ রাডার সিস্টেম, ১টি মোবাইল এটিসি টাওয়ার কেনার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন আছে।তিনি  জানান, বাংলাদেশি শান্তিরক্ষা মিশনের আওতায় বিস্ফোরক হামলা থেকে বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য ১৫টি মাইন রেজিস্ট্যান্ট অ্যামবুশ প্রটেক্টেড (এমআরএপি) ইউথ জ্যামার কেনা হয়েছে এবং যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও ৫০টি এমআরএপি কেনার চুক্তি করা হয়েছে।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়।

আরও খবর
Loading...