বিমান চলাচল শুরু করছে ভারত, কবে শুরু করবে বাংলাদেশ?

করোনাভাইরাসে বন্ধ হয়ে যাওয়া অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচল আবারও শুরু করছে ভারত। আগামী সোমবার থেকে বিশেষ নিয়মে বিমান চলাচল শুরু হবে বলে বুধবার দেশটির বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন।

নতুন করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে গত মার্চ থেকে লকডাউন কার্যকর থাকায় দেশটিতে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল বন্ধ রাখা হয়।

বুধবার দেশটির বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রী হার্দিপ পুরী এক টুইট বার্তায় বলেছেন, আগামী ২৫ মে থেকে দেশে অভ্যন্তরীণ রুটে বেসামরিক বিমান চলাচল ধারাবাহিকভাবে শুরু হবে। ওইদিন থেকে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য দেশের সব বিমানবন্দর এবং বিমান পরিবহন সংস্থাকে প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

দেশটির সরকার বলছে, নতুন নিয়মে সোমবার থেকে পুনরায় অভ্যন্তরীণ যাত্রী পরিবহন শুরু হবে। গত মার্চের শেষের দিকে দেশটিতে লকডাউন ঘোষণার পর থেকে বিমান চলাচল বন্ধ রয়েছে। চতুর্থ দফায় লকডাউন বৃদ্ধির সময় গত সপ্তাহে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বেশ কিছু বিধি-নিষেধে শিথিলতা আনার ঘোষণা দন।

অভ্যন্তরীণ যাত্রী পরিবহন শুরু হলেও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট আগামী ৩১ মে পর্যন্ত বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী হার্দিপ পুরী।

লকডাউনের কারণে দেশটির নিম্নবিত্ত শ্রেণির মানুষ চরম সঙ্কটের মুখে পড়েছেন। এদিকে, দেশটিতে প্রতিনিয়ত লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায়ও ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ হাজারের বেশি মানুষ। মারা গেছেন শতাধিক।

এছাড়া দেশটিতে বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৬ হাজার ৮৮৬ এবং প্রাণ হারিয়েছেন ৩ হাজার ৩০৩ জন।

এদিকে ৩০ মে পর্যন্ত বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়িয়েছে বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।
বেবিচক সূত্র জানিয়েছে  দেশের করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে, সরকার অনুমোদন দিলে ৩০ মে’র পর বিমান চলাচল শুরু হতে পারে দেশে।

আরও খবর
Loading...