ব্রিটিশ এয়ারওয়েজকে ২ কোটি পাউন্ড জরিমানা

অন্তত চার লাখ গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ব্রিটিশ এয়ারওয়েজকে ২ কোটি পাউন্ড জরিমানা করেছে যুক্তরাজ্যের ইনফরমেশন কমিশনারস অফিস (আইসিও)। খবর বিবিসি।

২০১৮ সালে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের ডাটা সিস্টেম হ্যাকিংয়ের শিকার হয়। হ্যাকাররা গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেয়। এতে গ্রাহকদের ক্রেডিট কার্ডও ক্ষতির মুখে পড়ে। লগ-ইন, বিল পেমেন্ট, ট্রাভেল বুকিংয়ের বিস্তারিত তথ্য ও পুরো নাম, ঠিকানাসহ গ্রাহকের নানা তথ্য চুরি হয়ে যায়।

পরবর্তী সময়ে তদন্তে দেখা যায়, ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের ডাটা সিস্টেমের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল না এবং ওই সময় মাল্টি-ফ্যাক্টর অথেনটিফিকেশন সক্রিয় ছিল না। আইসিও বলছে, জরিমানা করার সময় কভিড-১৯ মহামারীতে আর্থিক ক্ষতির বিষয়টি বিবেচনায় নেয়া হয়েছে।

ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের ডাটা প্রটেকশন অফিসার কার্ল গটলিয়েব বলছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে ২ কোটি পাউন্ড আসলে ‘বিশাল’ অংকের জরিমানা। তিনি বলেন, ‘এ থেকে দেখা যাচ্ছে, আইসিও তাদের কাজ করে যাচ্ছে এবং ধুঁকতে থাকা কোম্পানিকেও তথ্য সুরক্ষার ব্যর্থতায় বিন্দুমাত্র ছাড় দিচ্ছে না।’

অনেকেই ধারণা করেছিলেন, ব্রিটিশ এয়ারওয়েজকে ১৮ কোটি পাউন্ড বা তার কাছাকাছি অংক জরিমানা করা হতে পারে। সেক্ষেত্রে আইসিওর ২ কোটি পাউন্ড জরিমানার এ রায় তাদের কাছে বেশ বিস্ময়করই ঠেকছে। অবশ্য তারা বলছেন, বিষয়টি অন্য কোম্পানিগুলোর জন্য ভালোই হয়েছে। কারণ তারা যদি গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ হয়, তখন এ জরিমানাকে রেফারেন্স হিসেবে দেখাতে পারবে তারা।

 

আরও খবর
Loading...