ভিসা থাকলেও আপাতত মালয়েশিয়া যেতে পারবেননা বাংলাদেশিরা

করোনা মোকাবেলায় মালয়েশিয়ার চলমান নিয়ন্ত্রণ আদেশ শিথিল হলেও বিদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকছে। তাই বাংলাদেশিরাও যেতে পারবেননা মালয়েশিয়াতে। তবে বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত সকল মালয়েশিয়ানরা যেকোনো সময় প্রবেশ করতে পারবে।

সিনিয়র মন্ত্রী (সিকিউরিটি) ইসমাইল ইয়াকুব সাংবাদিকদের বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে প্রায় দেড় মাসেরও অধিক সময় আন্তর্জাতিক সব ফ্লাইট বন্ধ রয়েছে।

আগামী ১৮ মে এয়ার এশিয়ার একটি বিমান ইন্দোনেশিয়ার সুরাবাইয়া থেকে কুয়ালালামপুর রুটে বিমানের ফ্লাইট পরিচালনা করার ঘোষণা দিলে তার প্রতিক্রিয়ায় মন্ত্রী এই কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরও বলেন, বিদেশি অভিবাসীসহ ভ্রমণপিপাসুদের মালয়েশিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা এখনও বহাল রয়েছে। তবে এই নিষেধাজ্ঞা কতদিন বহাল থাকবে তা বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে জানিয়ে দেওয়া হবে। এ ছাড়া যাদের মালয়েশিয়ায় কাজের ভিসা রয়েছে তাদেরকেও প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। আমরা এখন শুধু অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট পরিচালনা করার অনুমতি দিয়েছি। যাতে করে আমাদের নাগরিকরা দেশের ভিতরে চলাচল করতে পারে। এ সময় যদি আমাদের নাগরিকরা বাইরের দেশ থেকে প্রবেশ করে তাহলে তাদের ১৪ দিনের জন্য হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে গত ১৮ মার্চ থেকে মালয়েশিয়া থেকে সব ধরণের ফ্লাইট বাতিল করা হয়। কিন্তু তার আগে অনেক বাংলাদেশিসহ সেদেশে অবস্থানরত বিদেশি অভিবাসীরা ছুটিতে নিজ দেশে যাওয়ার পর এখনও ফিরতে পারছে না। যার কারণে অনেকেই রয়েছেন দুশ্চিন্তায়। সেই সাথে আবার ভিসা শেষ হওয়ার পথেও রয়েছে অনেকের। তবে ভিসার মেয়াদ ফুরিয়ে গেলে প্রবেশে কোনো বাধা থাকবে কি না সে ব্যাপারে এখনও মালয়েশিয়া সরকারের পক্ষ থেকে বলা কিছু হয়নি। তবে সূত্র বলছে, চলমান নিয়ন্ত্রণ আদেশ কেটে গেলে ভিসা শেষ হলেও প্রবেশে বাধা থাকবে না। এ ব্যাপারে এখনই মালয়েশিয়া সরকারের সাথে আলোচনা করার জোড় দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশে ছুটিতে অবস্থান করা প্রবাসীরা।

আরও খবর
Loading...