মালয়েশিয়ায় টিকা নিতে আসা অবৈধ অভিবাসীদের আটক করা হবে না

মালয়েশিয়ায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দেশটিতে অবস্থানরত বৈধ-অবৈধ বিদেশি কর্মীদের টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছে। সেই সঙ্গে দেশটিতে যে সব অবৈধ বিদেশি কর্মী রয়েছে তাদের টিকা প্রদানকালে কোনো ধরনের আটক অভিযান পরিচালনা করা হবে না বলে ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার।

স্থানীয় সময় বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দেশটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী খায়রী জামালউদ্দিন সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য দেন।

তিনি বলেন, সরকার বিদেশি দূতাবাসগুলোকে এবং আন্তর্জাতিক সংস্থাসহ বিভিন্ন দলের সাথে যোগাযোগ করবে, যাতে কোভিড-১৯ টিকা দান কর্মসূচির অধীনে অবৈধ বিদেশি কর্মীদের টিকা দেওয়া যায় এবং আমাদের একটি বার্তা পাঠাতে হবে যে তারা (অনথিভুক্ত বিদেশি কর্মীরা) স্বাধীনভাবে এগিয়ে আসতে পারে এবং আত্মবিশ্বাসী হতে পারে যে, যখন তারা টিকা নিতে আসবে তখন তাদের গ্রেফতার বা আটক করা হবে না।

তিনি আরও বলেন, আমরা তাদের নিয়োগকর্তাদের সাথে একসাথে কাজ করব যাতে বৈধ বিদেশি কর্মীদের বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে আমাদের জানাতে পারে যাতে তারা দক্ষতার সাথে এবং স্বচ্ছন্দে তাদের টিকা গ্রহণ করতে পারে।

দেশটিতে বৈধ-অবৈধভাবে অবস্থান করা বিদেশি অভিবাসীরা যদি টিকার আওতায় না আসে তাহলে আমরা নিরাপদ নয়। তবে বৈধ অভিবাসীরা ভ্যাকসিন নিতে আসবে। কিন্তু তাদের মধ্যে অবৈধভাবে অবস্থান করা অভিবাসীরা হয়তো আটকের ভয়ে ঘরে বসে থাকবে।

তিনি বলেন, স্থানীয় নাগরিকদের মতো বিদেশি শ্রমিকদের জন্য একটি স্বেচ্ছাসেবী পদ্ধতি ব্যবহার করে ন্যাশনাল কোভিড-১৯ টিকা দান কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে।

আরও খবর
Loading...