NOVOAIR

মালয়েশিয়ায় লকডাউন ও বিধিনিষেধের মধ্যেই দূতাবাসের পাসপোর্ট বিতরণ

মালয়েশিয়ায় করোনা মহামারি রোধে ১৩ জানুয়ারি থেকে চলছে লকডাউন। আজ শুরু হওয়া লকডাউনের ৩য় দিন অতিবাহিত হচ্ছে। যারা লকডাউন (এসওপি) অমান্য করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার।

মালয়েশিয়ার সরকার স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং সিস্টেম-এসওপি ঘোষণার মাধ্যমে অধিক গণজমায়েতকে নিষিদ্ধ করেছে। এমন পরিস্থিতিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের হাতে গত তিন দিনে প্রায় আড়াই হাজারেরও অধিক পাসপোর্ট বিতরণ করা হয়েছে বলে দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানায়, সম্প্রতি বিধিনিষেধের মধ্যেও তিন প্রদেশে প্রায় দেড় হাজারেরও অধিক পাসপোর্ট বিতরণ করা হয়েছে।

মালেয়শিয়ায় গত নভেম্বর থেকে অবৈধ অভিবাসীদের বৈধকরণ প্রক্রিয়া রিক্যালিব্রেশন নামে বৈধকরণ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এ প্রক্রিয়ায় বৈধ হতে নতুন পাসপোর্টের আবেদন বৃদ্ধি পেয়েছে আগের চেয়ে কয়েকগুণ। বিদেশি দূতাবাসের মধ্যে একমাত্র মালয়েশিয়া ডাকযোগে পাসপোর্টের আবেদন গ্রহণ চালু রেখেছে। পাসপোর্ট বিতরণে অনলাইন বুকিং সিস্টেমসহ পাসপোর্ট সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা সমাধানের বিষয়টি সহজ করা হয়েছে।

মালয়েশিয়ায় নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত মো. গোলাম সারওয়ার বলেন, পাসপোর্ট দ্রুত ডেলিভারি দিতে ইতোমধ্যে হাইকমিশনে ছয়জনকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে এবং আরো লোকবল নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। মালয়েশিয়া পোস্ট অফিসের সঙ্গে আমাদের আলোচনা হয়েছে, যাতে দূরে কর্মরত কর্মীদের কাছে সহজে পাসপোর্ট পৌঁছে দেয়া যায়।

বৈধকরণ নিয়ে রাষ্ট্রদূত জানান, রিক্যালিব্রেশন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ নিয়োগদাতা বা মালিকনির্ভর। না জেনে না বুঝে কারও সঙ্গে আর্থিক লেনদেন না করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি চলমান লকডাউনে সরকারের বেঁধে দেয়া বিধিনিষেধ পালনেরও প্রবাসী বাংলাদেশিদের আহ্বান জানান তিনি।

আরও খবর
Loading...