মিয়ানমারে দুর্ঘটনায় আহত বাংলাদেশ বিমানের ক্রু অভ্র এখনও হাসপাতালে

মিয়ানমারে দুর্ঘটনায় আহত বাংলাদেশ বিমানের ক্রু অভ্র এখনও হাসপাতালে।

মিয়ানমারে উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় আহত বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের সেই ফ্লাইটের কেবিন ক্রু ফারজানা গাজী অভ্র এখনও হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। গত ১০ মে তাকে মিয়ানমার থেকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়। অন্য আহত যাত্রী, ককপিট ও কেবিন ক্রু’রা চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে ফিরেছেন।

বিমানের একটি সূত্র জানিয়েছে, কেবিন ক্রু ফারজানা গাজী অভ্র অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। গত ১২ মে তার অস্ত্রোপচার করা হয়। দুর্ঘটনায় তার মেরুদণ্ডের হাড় ভেঙে গেছে।

বিমানে সূত্র জানায়, ১০ মে রাতে বিশেষ ফ্লাইটে মিয়ানমারে বিমান দুর্ঘটনায় আহত ১০ জনকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়। ১০ জনের মধ্যে আহত চার জন যাত্রী, দু’জন পাইলট, দু’জন কেবিন ক্রু ও দু’জন গ্রাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার। বিমানের পক্ষ থেকে আহতদের অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়।

প্রসঙ্গত, ৮ মে ইয়াঙ্গুন বিমানবন্দরে অবতরণের সময় রানওয়েতে আছড়ে পড়ে বিমানের একটি ড্যাশ-৮ কিউ ৪০০ উড়োজাহাজ। ফ্লাইটটিতে যাত্রী ছিলেন শিশুসহ ২৯ জন। এছাড়া দু’জন পাইলট, দু’জন কেবিন ক্রু ও দু’জন গ্রাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। দুর্ঘটনার পরপর আহত ১৯ যাত্রীকে ইয়াঙ্গুনের স্থানীয় হাসপাতালগুলোতে ভর্তি করা হয়েছিল। সেদিন রাতেই চার যাত্রীকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সেই ফ্লাইটের পাইলট শামিম নজরুল দেশে ফেরার পর ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন ছিলেন। তিনি কবে বাড়ি ফিরেছেন সে তথ্য জানা যায়নি। তবে চিকিৎসকরা তাকে বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে বিমানের ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও ক্যাপ্টেন ফারহাত হাসান জামিল বলেন, ‘আহতদের মধ্যে কেউই মিয়ানমারে চিকিৎসাধীন নেই। তবে দেশে কেবিন ক্রু অভ্র চিকিৎসাধীন রয়েছেন।’

আরও খবর
Loading...