মীর কাসেম: পাকিস্তানের প্রতিক্রিয়ার কড়া জবাব বাংলাদেশের

Pakistan-Embassyএকাত্তরের যুদ্ধাপরাধী জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে পাকিস্তানের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার জবাবে ঢাকায় দেশটির রাষ্ট্রদূতকে ডেকে কড়া বার্তা দিয়েছে বাংলাদেশ।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, বাংলাদেশে একাত্তরের মানবতাধিরোধী অপরাধ ও গণহত‌্যার বিচার নিয়ে পাকিস্তান ক্রমাগতভাবে যে ‘বিদ্বেষমূলক প্রচার’ চালাচ্ছে, তা দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের প্রতি একটি বড় ধরনের আঘাত।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তলবে ঢাকায় পাকিস্তানের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার সামিনা মেহতাব রোববার দুপুরে হাজির হলে অতিরিক্ত সচিব কামরুল হাসান তাকে ওই বার্তা পৌঁছে দেন।

সেই সঙ্গে মীর কাসেমের বিষয়ে পাকিস্তানের বিবৃতির প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে পাকিস্তানের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনারকে একটি কূটনৈতিক পত্র দেওয়া হয় বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়।

শনিবার রাতে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারের একাত্তরের আল-বদর কমান্ডার মীর কাসেরেম ফাঁসি কার্যকরের পর পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ত্রুটিপূর্ণ বিচারে’ ১৯৭১ এর ডিসেম্বরের আগে অপরাধ সংঘটনের অভিযোগে বাংলাদেশের জামায়াতে ইসলামীর ‘প্রখ্যাত’ নেতা মীর কাসেম আলীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে পাকিস্তান গভীরভাবে মর্মাহত।

মীর কাসেমের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “ত্রুটিপূর্ণ বিচারের মাধ্যমে বিরোধীদের দমন পুরোপুরি গণতান্ত্রিক চেতনার পরিপন্থি।”

এর আগেও যুদ্ধাপরাধে জামায়াতের অন্যান্য নেতাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের পর একই ধরনের প্রতিক্রিয়া জানায় পাকিস্তান। তার প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে সে সময় বলা হয়, অযাচিতভাবে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করছে পাকিস্তান।

আরও খবর
Loading...