মোদীকে ধর্মীয় স্বাধীনতার অধিকার নিয়ে প্রশ্ন করবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

মুসলিমবিদ্বেষী নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) প্রতিবাদে উত্তাল ভারত সফরে এসে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে দেশের ধর্মীয় স্বাধীনতার অধিকার প্রসঙ্গে প্রশ্ন করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) হোয়াইট হাউস থেকে বিষয়টি স্পষ্ট করা হয়। এর আগে ২৪ ফেব্রুয়ারি (সোমবার) দুইদিনের সফরে ভারতে আসছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প- এ বিষয় নির্ধারিত হয়।

ভারতে গোটা দেশে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও আসামের নাগরিকত্ব তালিকার (এনআরসি) বিরুদ্ধে আন্দোলন চলছে। আমেরিকাসহ আন্তর্জাতিক মঞ্চে যা নিয়ে ইতোমধ্যেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বহু রাষ্ট্র। ঠিক এ পরিস্থিতিতে ভারত সফরে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

সফরে প্রেসিডেন্ট সিএএ প্রসঙ্গ আনবেন কি-না, জানতে চাওয়া হলে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে হোয়াইট হাউসের শীর্ষ এক কর্মকর্তা বলেন, ট্রাম্প প্রশাসনের কাছে ধর্মীয় স্বাধীনতার অধিকার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই ভারত সফরে বিশেষ করে সেদেশের ধর্মীয় স্বাধীনতার বিষয়টি বৈঠকে তুলে ধরবেন প্রেসিডেন্ট।

তিনি বলেন, ভারতের গণতান্ত্রিক ধারা ও প্রতিষ্ঠানকে আমেরিকা সবসময়ই সম্মান করে। এই ঐতিহ্য এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ট্রাম্প প্রশাসন নয়াদিল্লিকে সবসময় উৎসাহিত করবে। তবে ভারতে সিএএ-এনআরসি নিয়ে যা চলছে, তা নিয়ে আমেরিকা উদ্বিগ্ন। প্রেসিডেন্ট হয়তো এই ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন। মনে করিয়ে দিতে পারেন, গণতান্ত্রিক ধারায় ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের প্রতি যে সম্মান ভারত অতীতে দেখিয়েছে, তা যেন বজায় থাকে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মার্কিন কর্মকর্তা এও বলেন, ভারতীয় সংবিধানে ধর্মীয় স্বাধীনতার অধিকার, ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের প্রতি সম্মান ও সমানাধিকারের ব্যবস্থা রয়েছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আসা করছি এ ইস্যু আরেকবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ট্রাম্পের আলোচনায় উঠে আসবে।

আরও খবর
Loading...