রাশিয়ায় যাত্রীবাহী বিমানে আগুন, নিহত ৪১

রাশিয়ায় যাত্রীবাহী বিমানে আগুন, নিহত ৪১।

রাশিয়ার শেরেমেতেভো বিমানবন্দরে যাত্রীবাহী একটি বিমানে আগুনে ধরে দুই শিশুসহ অন্তত ৪১জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৫জন। বিমানে থাকা ৭৮ যাত্রীর মধ্যে ৩৭ জনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রোববার (৫ মে) বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৩ টার (স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ১২টা) দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

রাশিয়ান বার্তা সংস্থা ইন্টার ফ্যাক্সের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, রুশ বিমান সুপার জেট-১০০ সেরেমেতেভো বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের পরপরই দুর্ঘটনায় পড়ে। বিমানটি মারমানস্ক যাওয়ার কথা ছিল। মস্কো বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করতে যাচ্ছিলো বিমানটি। কিন্তু তার আগে মধ্য আকাশে থাকার সময়েই আগুন ধরে যায়। পাইলট জরুরি অবতরণের জন্য বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে বার্তাও পাঠিয়েছিলেন।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, বিমানটির লেজের অংশে আগুন-জ্বলা অবস্থায় দ্রুত অবতরণ করে বিমানটি। এরপর রানওয়েতে থাকা অবস্থাতেই কালো ধোঁয়ায় ছেয়ে যায় চারপাশ।

দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়া এক যাত্রী বলেন, ‘যারা বেঁচে গেছেন। তাঁরা অলৌকিক ভাবে বেঁচে ফিরেছেন

এদিকে এই ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত শুরু হয়েছে এবং একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
তদন্ত কমিটি জানায়, মস্কোর শেরেমিয়েতোবো বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের কিছুক্ষণের মধ্যেই বিমানটিতে সমস্যা হয়েছিল। আকাশে ওড়ার কিছুক্ষণ পরেই বিপদে পড়ার সংকেত পাঠায় বিমানটির কর্মীরা। তবে প্রথমবার জরুরি অবতরণ করতে গিয়েও ব্যর্থ হয় বিমানটি।

আরও খবর
Loading...