লন্ডন-ম্যানচেষ্টার রুটেই চলবে বিমানের ‘সোনার তরী’ ও ‘অচিন পাখি’

লন্ডন-ম্যানচেষ্টার রুটেই চলবে বিমানের ‘সোনার তরী’ ও ‘অচিন পাখি’।

যুক্তরাজ্যের লন্ডন ও ম্যানচেস্টার রুটেই চলবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৭৮৭-৯ সিরিজের ড্রিমলাইনার ‘সোনার তরী’ ও ‘অচীন পাখি’। ২০২০ সালের ৫ জানুয়ারি থেকে যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টারে নতুন করে ফ্লাইট পরিচালনা করতে যাচ্ছে বিমান। সোনার তরী অথবা অচিন পাখি দিয়েই এ রুট উদ্বোধন করা হবে। এছাড়াও অপরটি লন্ডন রুটে নিয়মিত ফ্লাইট  যাতায়াত করবে।

বিমান সূত্রে জানা গেছে, সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ৭৮৭-৯ সিরিজের বোয়িং সোনার তরী ও অচিন পাখি আগামী ২১ ও ২৩ ডিসেম্বর যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে আসার কথা রয়েছে। সেই বিমানগুলোতে অত্যাধুনিক সব সুবিধা থাকবে।

জানা গেছে, গত সেপ্টেম্বর মাসে চতুর্থ ড্রিমলাইনার উদ্বোধনের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দিয়েছিলেন, বিমানের জন্য আরো নতুন দুটি ড্রিমলাইনার কেনা হবে। মূলত প্রধানমন্ত্রীর আগ্রহেই এ দুটি উড়োজাহাজ কিনেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। প্রায় ৪০টি নামের মধ্যে দুটি নাম পছন্দ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একটির নাম ‘সোনার তরী’, অন্যটি ‘অচিন পাখি’।

বিমানের উপ-মহাব্যবস্থাপক তাহেরা খন্দকার বলেন, ৭৮৭-৯ সিরিজের ড্রিমলাইনার সোনার তরী ও অচিন পাখির যেকোনো একটি দিয়ে ম্যানচেস্টার রুটে অপারেশন শুরু করা হবে। আর অপরটি চলবে লন্ডন রুটে।

তথ্য মতে, বিমানের বহরে বর্তমানে উড়োজাহাজ রয়েছে ১৬টি। এর মধ্যে নিজস্ব উড়োজাহাজের সংখ্যা ১০। বাকি ৬টি লিজে আনা। নিজস্ব ১০টি উড়োজাহাজের সবই বোয়িং কোম্পানি থেকে কেনা। এর মধ্যে ৪টি ড্রিমলাইনার ৭৮৭-৮, ৪টি ৭৭৭-৩০০ ইআর ও ২টি ৭৩৭-৮০০। নতুন দুটি ৭৮৭-৯ উড়োজাহাজ নিয়ে বিমানের উড়োজাহাজ হবে ১৮টি। আগামী বছর কানাডা থেকে কেনা ৩টি ড্যাশ-৮ দেশে আসছে।

আরও খবর
Loading...