শাহজালাল বিমানবন্দরের কার্গো ভিলেজে প্রবেশাধিকার চায় কাস্টম

এমফিটামিন মাদকের পর এক মাসের ব্যবধানে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রপ্তানি কার্গো ভিলেজে তৈরি পোশাকের চালানে ইয়াবা ধরা পড়ায় টনক নড়েছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের।
বাড়ানো হচ্ছে স্ক্যানারসহ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর বলছে, দেশী-বিদেশী চক্র জড়িত ইয়াবা পাচারের সঙ্গে।
এদিকে চোরাচালান রোধে রফতানি কার্গো ভিলেজে কাস্টম কর্মকর্তাদের প্রবেশাধিকার চায় ঢাকা কাস্টম হাউস।
এ ব্যাপারে এনবিআরকে চিঠি দিয়েছে সংস্থাটি।

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রফতানি কার্গো ভিলেজকে ইয়াবা ও ইয়াবার কাঁচামাল পাচারের রুট হিসেবে ব্যবহার করছে আন্তর্জাতিক মাদক ব্যবসায়ী চক্র।
কায়িক পরীক্ষা কম হওয়ায় তৈরি পোশাকের চালানকে বেছে নেয়া হয়েছে পাচারের জন্য।
গত ৯ সেপ্টেম্বরে পাচারের চেষ্টাকালে ১৫ কেজি ইয়াবা তৈরির কাঁচামাল এমফিটামিন জব্দের পর পোশাকের কার্টনে আবারো মিললো ৩৯ হাজার পিস ইয়াবা।

আরও খবর
Loading...