সংকট কাটাতে পরিচালন ব্যয় ৫৯ শতাংশ কমিয়েছে ইউনাইটেড এয়ারলাইনস

কোভিড-১৯ মহামারীর সংকট থেকে পুনরুদ্ধারে পরিচালন ব্যয় কমিয়ে দিয়েছে মার্কিন আকাশসেবা সংস্থা ইউনাইটেড এয়ারলাইনস। বুধবার সংস্থাটি জানিয়েছে, তৃতীয় প্রান্তিকে তারা পরিচালন ব্যয় ৫৯ শতাংশ কমিয়েছে, এতে সংকট থেকে পুনরুদ্ধারে ব্যয় করার মতো ২ হাজার কোটি ডলার এখন তাদের হাতে রয়েছে। খবর রয়টার্স।

আকাশসেবা খাতের কর্মকর্তারা বলছেন, বিশ্বজুড়ে ভ্রমণ চাহিদা ধীরে ধীরে বাড়ছে। তবে পরিস্থিতি ২০১৯ সালের অবস্থানে ফিরে আসতে অন্তত বছর দুয়েক সময় লেগে যাবে বলে মনে করছেন তারা।

চলমান ভ্রমণ বিধিনিষেধের কারণে আন্তর্জাতিক ভ্রমণ খাত এখনো চাপের মধ্যে রয়েছে। পরিস্থিতি ভালো হওয়ার পর এয়ারলাইনসগুলো সবার আগে ব্যয় কাঠামো ও নেটওয়ার্ক ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা করছে।

ইউনাইটেড এয়ারলাইনসের প্রধান নির্বাহী স্কট কিরবি বলেন, ‘গত সাত মাসে আকাশসেবা খাতের ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে সংকট তৈরি হয়েছে। আমরা এ অবস্থা থেকে উত্তরণের প্রস্তুতি নিচ্ছি। তবে কোভিড-১৯-এর প্রভাব আরো বেশ কিছুদিন অব্যাহত থাকবে।’

শিকাগোভিত্তিক আকাশসেবা সংস্থাটি জানিয়েছে, চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে তাদের দৈনিক গড় ব্যয় আড়াই কোটি ডলারে নেমে এসেছে। দ্বিতীয় প্রান্তিকে তা ছিল ৪ কোটি ডলার। তৃতীয় প্রান্তিকের এই ব্যয়ের মধ্যে ছাঁটাইকৃত কর্মীদের ক্ষতিপূরণ ও ঋণ পরিশোধ বাবদ দৈনিক গড়ে ৪০ লাখ ডলার অন্তর্ভুক্ত।

ইউনাইটেড এয়ারলাইনস বলেছে, তারা প্রায় ২২ হাজার কর্মীকে ছাঁটাই করেছে এবং এজন্য ক্ষতিপূরণ বাবদ প্রায় ৭৬ কোটি ৫০ লাখ ডলার ব্যয় হয়েছে। গত ৩০ সেপ্টেম্বর প্রতিষ্ঠানটির হাতে থাকা নগদ অর্থের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৯৪০ কোটি ডলার।

আরও খবর
Loading...