সংকট মোকাবেলায় আমেরিকান এয়ারলাইন্সের নতুন শুরু

করোনা সংকটে বিশ্বের সব এয়ারলাইন্স তাদের কোম্পানি নতুন করে সাজাচ্ছে।
নতুনভাবে কর্ম পরিকল্পনা করছে। তবে সবারই লক্ষ্য অল্প খরচে ভাল সার্ভিস দেয়া। আমেরেকিান এয়ারলাইন্সও এরকমই ভাবছে।
তারা এখন নিজেদেরকে স্টার্ট আপ (নতুন চালু হওয়া) কোম্পানি মনে করছে। কোম্পানিটির ইউরোপ ও এশিয়া অঞ্চলের ম্যানেজিং ডিরেক্টর রেট ওয়ার্কম্যান বলছেন, করোনাভাইরাসের প্রভাবে সৃষ্ট সংকট গভীর সংকট।
এ সংকটে আমরা নিজেদেরকে ‘একটি ২-৩ বিলিয়ন স্টার্ট আপ কোম্পানি’ মনে করছি। তিনি বলছেন, করোনা মহামারীতে এয়ারলাইন্সে যা ঘটছে এসবের মধ্যে কিছু গুজবও রয়েছে।
কারণ আমেরিকান এয়ারলাইন্সে নজিরবিহীন অর্থ লেনদেন হচ্ছে। আমরা গতবছরও ৪৫ বিলিয়ন রেভিনিউ অর্জন করেছিলাম। ফ্লাইট গ্লোবাল ১৯ অক্টোবর খবরটি প্রকাশ করেছে।
ওয়ার্কম্যান বলছেন, সব কোম্পানিই জানে আমেরিকান এয়ারলাইন্স একটি সুসংহত ব্যবস্থাপনার আওতায় আসছে যেখানে যে কেউ তার সম্পদ বিনিয়োগ করতে পারে। এই কঠিন চ্যালেঞ্জিং পরিবেশেও তাতে কোনো সমস্যা হবে না।
আগে আমেরিকান এয়ারলাইন্সের ৭০-৭৫টি ফ্লাইট প্রতিদিন আটলান্টিক পাড়ি দিত।
এখন সে সংখ্যা দশের নিচে। লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দরে কোম্পানিটি তাদের ২৫ শতাংশ ক্যাপাসিটি ধরে রাখতে সক্ষম হচ্ছে।
তাও ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের সঙ্গে সমন্বয় করেই এটি করতে হচ্ছে তাদের।
ওয়ার্কম্যান বলছেন, এখন আমাদের দক্ষতা দেখানো সময়।
এভিয়েশন শিল্পকে রক্ষার করার সবচেয়ে দ্রুততম উপায় হ’ল এয়ারলাইন্সগুলোকে একসঙ্গে সংযুক্ত হয়ে সত্যিকারের বাণিজ্যিক পরিবেশ সৃষ্টিতে মনোনিবেশ করা।
তিনি গত বছর যুক্তরাজ্যে হয়ে যাওয়া ‘সামিট এয়ারলাইন্স ২০৫০’ এর কথা উল্লেখ করে বলেন, নতুন করে শুরুর এ সময়ে যাত্রীরা আমাদের বিমানে স্বাস্থ্য সম্মত ও নিরাপদ পরিবেশ আশা করবে। যুক্তরাজ্যের ট্রান্সপোর্ট সেক্রেটারি গ্রান্ট শ্যাপস বলছেন, গত বছরের ‌’সামিট এয়ারলাইন্স ২০৫০’ আমাদের প্রত্যাশার মাত্রা বাড়িয়ে দিয়েছে।
সেখানে ভ্রমণকারীদের করোনাভাইরাস পরীক্ষার ব্যাপারে নানা পদক্ষেপ নেয়া হয। যেটি বাস্তবায়ন করলে এয়ারলাইন্সে যাত্রী চাহিদা বাড়বে।
ওয়ার্কম্যান বলছেন, কোম্পানি টিকিয়ে রাখার ক্ষেত্রে কার্গো ফ্লাইট সব নয়। তবে বাণিজ্য ধরে রাখতে কার্গো ফ্লাইটের বিকল্প নেই। ৫৭ হাজার কেজি স্যামন ফিশ নিয়ে আমেরিকান কার্গোর আটলান্টিক পাড়ি দেয়ার উদাহরণও রয়েছে। কিন্তু এ বছরে সর্বশেষ কার্গো ফ্লাইট ছিল মার্চের আগে। এ বছর মাত্র ৩০০০ কার্গো ফ্লাইট পরিচালনা করতে সক্ষম হয়েছি আমরা।

 

 

আরও খবর
Loading...