সন্তানের মুখ দেখা হলো না বিধ্বস্ত হওয়া বিমানের কো-পাইলট অখিলেশের!

পাইলট যা নির্দেশ দেবেন তা অক্ষরে পালন করতে হবে কো-পাইলটকে, এমনটাই নিয়ম।
তাই ভারতীয় বিমানবাহিনীর পাইলট অবসরপ্রাপ্ত উইং কমান্ডার দীপক বসন্ত সাঠে যখন দু’বার ব্যর্থ হয়েও শেষমেশ অবতরণের সিদ্ধান্ত জানান,
তখনো নিজের দায়িত্ব পালন করে গেছেন বিমানটির কো-পাইলট অখিলেশ কুমার।

তার পরের ঘটনা তো এখন আমাদের সবার জানা। কোজিকড় বিমান দুর্ঘটনা কেড়ে নিয়েছে ২০টি তাজা প্রাণ।
তার মধ্যে রয়েছেন বিমানের পাইলট দীপক বসন্ত সাঠে ও কো-পাইলট অখিলেশও। অখিলেশের স্ত্রী ছিলেন সন্তানসম্ভাবনা।
শুক্রবার সন্ধ্যার ঘটনায় চোখের পলকে তাঁর সব স্বপ্ন শেষ।

এদিন সংবাদমাধ্যমের সামনে আসেন অখিলেশ কুমারের ভাই বাসুদেব।
তিনিই জানান, ‘আমার বউদি সন্তানসাম্ভবা, আগামী ১৫-১৭ দিনের মধ্যেই তিনি প্রথম সন্তান প্রসব করবেন। আমাদের যে কত বড় ক্ষতি হলো তা বলে বোঝাতে পারব না।’

কান্নায় ভেঙে পড়েন অখিলেশের ভাই, গলার স্বর বুজে আসে, তবু বলে চলেন, ‘দাদা খুব নম্র স্বভাবের ছিলেন।
বছর তিনেক আগে তিনি এয়ার ইন্ডিয়ায় যোগ দেন। শেষবার বাড়ি এসেছিলেন লকডাউন শুরু হওয়ার আগে। তারপর টানা ‘বন্দে ভারত’ মিশনের কাজ করে গেছেন।’

আরও খবর
Loading...