‘সিরিয়ার সর্বত্র হামলা চালানো হবে’

‘সিরিয়ার সর্বত্র হামলা চালানো হবে’

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, যদি আর কোনো তুর্কি সেনার ওপর হামলা করা হয়, তবে সিরিয়ায় স্থল ও আকাশ– যে কোনো জায়গায় সিরীয় সরকারি বাহিনীর ওপর হামলা চালাবে তুর্কি সেনাবাহিনী।

বুধবার তিনি বলেন, ফেব্রুয়ারির শেষ নাগাদ সিরীয় বাহিনীকে উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় ইদলিবের তুর্কি পর্যবেক্ষণ চৌকির বাইরে সরিয়ে দিতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।-খবর রয়টার্সের

এদিকে আসাদ বাহিনীকে কোনো হামলার অজুহাত তৈরির সুযোগ না দিতে বিদ্রোহীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

ইদলিবে নতুন করে সহিংসতার আগুন জ্বলে উঠেছে। দেশটির ৯ বছর ধরে চলা যুদ্ধে বিদ্রোহীদের সর্বশেষ ঘাঁটি ইদলিবে রাশিয়া ও তুরস্ক সমর্থিত সিরীয় বাহিনী অগ্রসর হলে এই সংকট তৈরি হয়।

সিরীয় প্রেসিডেন্ট বাসার আল-আসাদবিরোধী বিদ্রোহীদের একটি গোষ্ঠীকে সহায়তা ও সমর্থন দিয়ে আসছে তুরস্ক। গত ১০ দিনে সিরীয় বাহিনীর গোলায় ১৩ তুর্কি সেনা নিহত হওয়ার পর পাল্টা হামলাও বেড়ে গেছে।

২০১৮ সালের অস্ত্রবিরতি চুক্তির কথা উল্লেখ করে এরদোগান বলেন, পর্যবেক্ষণ চৌকি কিংবা অন্য কোথাও আমাদের কোনো সেনা যদি সামান্যও আহত হন, তবে আজ থেকে সর্বত্র সিরীয় বাহিনীকে হামলা করা হবে। সেটা হোক ইদলিব সীমান্ত কিংবা সোচি চুক্তির রেখায়।

আঙ্কারায় একে পার্টির সদস্যদের সামনে তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, স্থল কিংবা আকাশ– যেখানে হোক, কোনো দ্বিধা ছাড়া সেখানে হামলা চালানো হবে।

সিরিয়ায় একটি বিমান ঘাঁটি রয়েছে রাশিয়ার। বেশ কয়েক বছর ধরে ইদলিবের আকাশপথ রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তুর্কি সামরিক বাহিনীর হতাহতের ঘটনায় আঙ্কারার সঙ্গে মস্কোর সম্পর্কে টানাপোড়েন দেখা দিয়েছে।

আরও খবর
Loading...