১ আগস্ট থেকে ৩০ শতাংশ আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু করবে কুয়েত

কুয়েত আগমন-বহির্গমনে লাগবে পিসিআর সনদ

করোনা নিয়ন্ত্রণে পাঁচ ধাপে স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরার পরিকল্পনা অনুযায়ী চারমাস ফ্লাইট বন্ধ থাকার পর স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১ লা আগস্ট থেকে ৩০ শতাংশ আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কুয়েত সরকার।

স্থানীয় গণমাধ্যম আরব টাইমসহ একাধিক মিডিয়া থেকে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। সবধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। এক্ষেত্রে যাত্রীদের মাস্ক-মোজা ব্যবহার করতে হবে। কুয়েত বিমানবন্দর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ডেস্ক থেকে দেওয়া হবে পিসিআর সনদ- যেটার জন্য (১০ দিনার থেকে ২০ দিনার) লাগবে।

তবে কুয়েত সরকার এই সিদ্ধান্ত নিলেও বাংলাদেশে ওই ৩০ শতাংশ ফ্লাইটের মধ্যে পড়বে কিনা সেটা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কতৃপক্ষ সুত্রে জানাগেছে এখন পর্যন্ত কুয়েত এয়ারলাইন্স বাংলাদেশে ফ্লাইট পরিচালণা প্রসংগে কোন কথা বলেনি। এমনকি ফ্লাইট পরিচালনার বিষয়ে কোন আবেদনও করেনি।

এদিকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একজন কর্মকর্তা এভিয়েশন নিউজকে বলেন, যদি কুয়েত আন্তজাতিক ফ্লাইট চালু করে তাহলে বিমান কুয়েতে ফ্লাইট পরিচালণার জন্য চেষ্টা করবে।

জানাগেছে কুয়েতে ফ্লাইট পরিচালণা শুরু হলে যাত্রীদের বিমানবন্দরে আসতে ও যেতে স্ক্যানার মেশিনের মাধ্যমে শরীরের তাপমাত্রা চেক করা হবে। এছাড়া ছুটিতে থাকা প্রবাসীরা আসার ৪ দিন আগে কুয়েত দূতাবাস অনুমোদিত মেডিকেল সেন্টারগুলো থেকে পিসিআর সনদ গ্রহণ করতে হবে। অবশ্যই সেটা আরবিতে অনুবাদ করা হতে হবে। এক্ষেত্রে দূতাবাসের কোনোধরনের সাইন প্রয়োজন নেই।

কুয়েত আসতে বিমান বন্দরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একটি ফরম পূরণ করতে হবে। যদি প্রয়োজন মনে করে তাহলে সরকারি কোয়ারেন্টান অথবা হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বাধ্য থাকবে। এটা ছাড়া গুগল প্লে স্টোরে sholink নামে একটি অ্যাপ আছে, চালু করলে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে। তবে কোন কোন দেশের সাথে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনা করবে সে রকম কোনো দেশের নামের তালিকা প্রকাশ করেনি কুয়েত এভিয়েশন।
আরও খবর
Loading...