২০২৩ ক্রিকেট বিশ্বকাপ নিয়ে পরিকল্পনা শুরু অস্ট্রেলিয়ার

২০১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে না খেলতে পারার হতাশা নিয়ে দেশে ফিরে ওয়ানডে বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া।
বলা যায় সবচেয়ে সফল তারাই। এরপরেই আছে দুইবার করে বিশ্বকাপ জেতা ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ভারত।

সবশেষ গত বিশ্বকাপে ঘরের মাঠে বিশ্বকাপ জিতেছে ইংল্যান্ড।
তবে পাঁচবারের বিশ্বকাপ জয়ীরা গেল বিশ্বকাপের ব্যর্থতা ভুলতে ২০২৩ বিশ্বকাপকে (ভারত) যেকোনো মূল্যেই নিজেদের করে নিতে চায়।
অস্ট্রেলিয়ার সীমিত ওভারের ক্রিকেটের অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ স্থানীয় একটি রেডিও স্টেশনের সঙ্গে আড্ডায় জানিয়েছেন,
অজি ক্রিকেট নিয়ে তার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার কথা। শুধু ওয়ানডে বিশ্বকাপ নয়, আসন্ন দুই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও ভালো করার আশা ফিঞ্চের।
‘অধিনায়ক হিসেবে আমার নজর আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দিকে।
সেখানে কি হবে সেটাই ভাবাচ্ছে আমাকে। এছাড়া ২০২৩ বিশ্বকাপ খেলতেও মুখিয়ে আছি আমি।
২০২৩ বিশ্বকাপ নিয়ে আমাদের আগে থেকেই পরিকল্পনা সাজাতে হবে। এনিয়ে আমাদের ভাবতে হচ্ছে, ভারতে খেলতে কেমন দল হওয়া উচিত।
দুইজন স্পিনার নিয়ে খেলবো নাকি একজন বাড়তি অল-রাউন্ডার? সবকিছু নিয়েই ভাবতে হবে।’
করোনাভাইরাসের কারণে অস্ট্রেলিয়ার অনুষ্ঠিতব্য আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে আছে শঙ্কা।
আসর হবে কি হবে না সেটা নির্ধারণ হতে পারে জুলাইয়ে আসন্ন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থার (আইসিসি) সভায়।
পরবর্তী ওয়ানডে বিশ্বকাপ ভারতে বলেই তা বেশী ভাবাচ্ছে অজিদের। যদিও ভারতের মাটিতে অস্ট্রেলিয়ার খেলা ৮৯ ওয়ানডে ম্যাচে তাদের জয় ৫৩টি।
শেষ ৮ ম্যাচে ভারতের মাটিতে অস্ট্রেলিয়ার জয় পরাজয়ের অনুপাত সমান। ৪ ম্যাচ জয়ের বিপরীতে তারা হেরেছে সমান ৪ ম্যাচে।

আরও খবর
Loading...