২৪ বিলিয়ন ডলার ক্ষতির মূখে মধ্য প্রাচ্যের বিমান সংস্থাগুলি

এভিয়েশন নিউজ রিপোর্টঃ

আন্তর্জাতিক বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষ (আয়াটা) পূর্বাভাস দিয়েছে যে করোনভাইরাস মহামারী মোকাবেলায় প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থার অংশ হিসাবে ফ্লাইট স্থগিতের কারণে মধ্য প্রাচ্যের বিমান সংস্থাগুলি ২৪ বিলিয়ন ডলার পর্যন্ত রাজস্ব হারাতে পারে।

আফ্রিকা ও মধ্য প্রাচ্যের দায়িত্বে থাকা আয়াটা’র আঞ্চলিক ভাইস প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ আল-বাক্রি বৃহস্পতিবার বলেছেন যে ইতোমধ্যে ৭.২ বিলিয়ন ডলারের বেশি ক্ষতি্র পরিমান ছাড়িয়েছে।

অঞ্চলটির বেশ কয়েকটি এয়ারলাইনস তাদের বেতনের মাত্র ৫০ শতাংশ কর্মীদের বেতন দিতে বাধ্য হয়েছে, অন্যরা সংকট শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের বিমান কর্মীদের বিনা বেতনে ছুটিতর জন্য আবেদন করতে বলেছে।

আল-বাকরি বলেছেন, মধ্য প্রাচ্যের দেশগুলোর সরকারের প্রতিক্রিয়া এখনো প্রত্যাশার নীচে রয়েছে। “আমরা আর্থিক ত্রাণ প্যাকেজের মাধ্যমে বিমান সংস্থাগুলি রক্ষার জন্য আরও বেশি হস্তক্ষেপ চেয়েছিলাম,” তিনি উল্লেখ করেছিলেন।

বিমান চলাচলে বাধার কারণে এই অঞ্চলটি জিডিপি’র প্রায় ৬৬ বিলিয়ন ডলার হারাতে পারে বলে সতর্ক করে তিনি যোগ করেছেন যে, মধ্য প্রাচ্যে বিমান চলাচল পুনরায় শুরু করা হবে ধীরে ধীরে। “বিমান পরিষেবা কীভাবে পুনরায় চালু করতে হবে সে সম্পর্কে মধ্য প্রাচ্যের দেশগুলোর সাথে আলোচনা চলছে।”

মধ্য প্রাচ্যের প্রধান বিমান সংস্থাগুলি তাদের যাত্রীবাহী বাণিজ্যিক ফ্লাইট গুলো পুরোপুরি বন্ধ করে দিয়েছে। কাতার এয়ারওয়েজের মতো সংস্থা তাদের বৃহত্তর যাত্রীবাহী বিমানকে চীনের সাথে ব্যবসায়ের জন্য কার্গো প্লেন হিসাবে ব্যবহার করছে।

আরও খবর
Loading...