২৫ ফ্লাইটে ভারত থেকে ফিরলেন ৩৫৫৪ জন বাংলাদেশি যাত্রী

ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের আকাশ পথে উদ্ধার কার্যক্রমের তৃতীয় ধাপ সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার (শেষ দিনে) এয়ার ইন্ডিয়াসহ ৩টি স্পেশাল ফ্লাইটে ফেরানো হয়েছে ৪৮২ জন বাংলাদেশীকে।

নয়াদিল্লিস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশন জানিয়েছে, চিকিৎসা এবং অন্যান্য জরুরি প্রয়োজনে ভারতে গিয়ে আটকে পড়াদের উদ্ধারের সরকারি সিদ্ধান্তে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবং ইউএস বাংলা এয়ারওয়েজ গত ৩ সপ্তাহে মোট ২৫টি স্পেশাল ফ্লাইট পরিচালনা করেছে। এতে আকাশ পথে ফিরতে সক্ষম হন সাড়ে ৩ হাজারের (মোট ৩৫৫৪ জন) বেশি বাংলাদেশি। ভারত সরকারের সর্বাত্মক সহযোগিতায় গত ২০শে এপ্রিল থেকে স্পেশাল ফ্লাইটগুলো চলছিলো।

বাংলাদেশ মিশনের বিজ্ঞপ্তি মতে, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইটে দিল্লী থেকে ১৪৯ ও ইউএস বাংলার অপর ফ্লাইটে চেন্নাই হতে ১৬৫ জন বাংলাদেশি দেশে ফিরছেন । এছাড়া ঢাকায় আটকে থাকা ভারতীয়দের উদ্ধার করতে আসা এয়ার ইন্ডিয়ার স্পেশাল ফ্লাইটে চেন্নাই থেকে আরো ১৬৮ জন বাংলাদেশি দেশে ফিরেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, উদ্ধার হওয়া বিপুল সংখ্যক ওই বাংলাদেশির অধিকাংশই রোগী এবং তাদের সেবার জন্য সঙ্গে থাকা স্বজন (এটেনডেন্ট)।

তবে ভারতের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী ও পর্যটকরাও ফিরেছেন।

এদিকে দিল্লি মিশনের তথ্য মতে, আকাশপথের পাশাপাশি সড়কপথেও সসহস্রাধিক বাংলাদেশি ফিরেছেন। ভারতজুড়ে লকডাউন শুরু হওয়ার পর বিভিন্ন স্থল সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশ মিশনসমূহের সহায়তায় তারা ফিরেন। হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, তামিলনাড়ু, পাঞ্জাব, কর্ণাটক সহ বিভিন্ন দূরবর্তী রাজ্য থেকে এখনও অনেকে ফিরছেন জানিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, তবে যে বা যারাই ফিরছেন বা ফিরেছেন তাদের ১৪ দিন কোয়ারিন্টিনে থাকা নিশ্চিত করা জরুরি। সংশ্লিষ্ট মিশনগুলো প্রত্যাবাসিত বাংলাদেশিদের সেই মেটিভেশন দিয়েই পাঠিয়েছে।

আরও খবর
Loading...