৯৯৯-এ ফোনের আড়াই ঘণ্টার মধ্যে চট্টগ্রামের অপহৃত ব্যবসায়ী রংপুরে উদ্ধার।

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন কল পেয়ে চট্টগ্রামের অপহৃত ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করেছে রংপুর মিঠাপুকুর থানার পুলিশ। এ সময় দুই অপহরণকারীকে আটক করা হয়েছে।৯৯৯-এর মিডিয়া সেল থেকে গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

বুধবার দুপুর ১টায় চট্টগ্রামের বাঁশখালী থানার মধ্য মানিক পাঠান গ্রাম থেকে এক ব্যক্তি ‘জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯’-এ ফোন করে জানান তার বড় ভাইকে রংপুরের মিঠাপুকুর থানা এলাকা থেকে অপহরণ করা হয়েছে।অপহরণকারীরা তাদের কাছে ফোনে মুক্তিপণ হিসেবে ১০ লাখ টাকা দাবি করেছে এবং টাকা না দিলে তার ভাইকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে।

অপহৃত ব্যবসায়ীর ছোট ভাই জানান, তার ভাই একজন কলা ব্যবসায়ী। তিনি রংপুর থেকে কলা এনে চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে বিক্রি করেন। তার ভাইয়ের পূর্ব পরিচিত এক ব্যক্তি ব্যবসার কথা বলে রংপুর যেতে বললে তার ভাই গত ২১ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম থেকে রংপুর যান। এরপর ২২ ফেব্রুয়ারি তারা অপহরণকারীদের ফোন কল পান, ‘তার ভাইকে জীবিত ফিরে পেতে চাইলে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দিতে হবে।‘

তিনি আরও জানান, তারা ইতিমধ্যে অপহরণকারীদের একটি বিকাশ নম্বরে দেড় লাখ টাকা পাঠিয়েছেন। কিন্তু আর টাকা দেয়ার সামর্থ্য এই মুহূর্তে তাদের নেই। তারা চট্টগ্রাম থেকে কীভাবে তার ভাইকে উদ্ধার করবেন বা রংপুর পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করবেন বুঝতে পারছিলেন না। কোনো উপায় না পেয়ে তিনি ৯৯৯-এ ফোন করেন।

৯৯৯ থেকে কলারের সঙ্গে তাৎক্ষণিকভাবে রংপুর মিঠাপুকুর থানার ওসি জাফর আলীর সঙ্গে কথা বলিয়ে দেয়। অপহরণকারীদের যে বিকাশ নম্বরে টাকা পাঠানো হয়েছে এবং টাকা পাঠানোর জন্য একটি ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট নম্বর তারা দিয়েছিল- সে সব তথ্য ওসিকে জানানো হয়। এরপর রংপুর মিঠাপুকুর থানা পুলিশ উদ্ধার অভিযানে নামে।

অবশেষে বিকাল সাড়ে ৩টায় ৯৯৯-কে মিঠাপুকুর থানার ওসি জানান, তারা চট্টগ্রামের অপহৃত কলা ব্যবসায়ী আতিকুর রহমান হাসানকে (২৯) মিঠাপুকুরের তাজুরপাড়া এলাকার একটি নির্মাণাধীন ভবনের ৩য় তলা থেকে উদ্ধার করেন এবং অপহরণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মিঠাপুকুরের আশকরপুর গ্রামের বাসিন্দা রেজাউল (৩৫) ও শাহীনুর আক্তার (২৮) দম্পতিকে আটক করেন।

ওসি আরও জানান, অভিযুক্তদের কাছ থেকে মুক্তিপণ হিসেবে আদায়কৃত এক লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়। এ বিষয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং অন্য অপহরণকারীদের আটকের চেষ্টা চলছে।

আরও খবর
Loading...