ভারতগামী ফ্লাইটে যাত্রী সঙ্কট

দীর্ঘ সাত মাস পর বুধবার ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ফ্লাইট চলাচল শুরু হয়েছে। তবে প্রথম দুদিনে যাত্রী সংখ্যা বেশ কম ছিল।
ছোট আকৃতির প্লেন পাঠিয়েও ফ্লাইটগুলোর বেশির ভাগ আসনই ফাঁকা থাকছে।
সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, ভারতে যাত্রী বাড়বে কিনা সেটি আরও কয়েক দিন পর বোঝা যাবে।

ভারতে বুধবার দেশের বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের দুটি ফ্লাইট ছিল।
তাদের ঢাকা-কলকাতা ফ্লাইটে যাত্রী ছিল ২৩ জন এবং ঢাকা-চেন্নাই ফ্লাইটের যাত্রী ছিল ৩২ জন।
দুই রুটেই ৭৪ আসনের ড্যাশ-৮ পাঠানো হয়েছিল।
একদিন পর বৃহস্পতিবার থেকে চালু হয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের এয়ার বাবল ফ্লাইট।
বিশেষ ব্যবস্থার এই ফ্লাইট বিকেল তিনটার দিকে ঢাকা থেকে দিল্লির উদ্দেশে রওনা দেয়।
তবে দিল্লি রুটেও ড্যাশ-৮ উড়োজাহাজ পাঠায় বিমান। তাতেও যাত্রী পূর্ণ হয়নি।
আসা-যাওয়া মিলিয়ে ৭০ জন যাত্রী চড়েছেন বিমানে।
বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মোকাব্বির হোসেন বৃহস্পতিবার বলেন, ঢাকা-দিল্লি ফ্লাইটে যাত্রী ছিল ৪২ জন। দিল্লি থেকে ফিরবেন ২৮ জন যাত্রী।
এ ছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রাম-চেন্নাই রুটে ইউএস বাংলার আরও একটি ফ্লাইট ছিল।
এই ফ্লাইটেও যাত্রী সংখ্যা কম ছিল বলে বিমানবন্দর সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.