আইসিটি রফতানিতে অনেক এগিয়েছে বাংলাদেশ

polok-sm20160524154252তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেছেন, একটা সময় শুধু পোশাক রফতানি নিয়ে স্বপ্ন দেখতো বাংলাদেশ। এখন আইসিটি রফতানিতেও অনেক এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। শিগগিরিই রফতানিতে পোশাক শিল্পের পরই আইসিটির অবস্থান থাকবে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে ইএটিএল-প্রথম আলো অ্যাপস প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে আমরা ৫ বিলিয়ন সমপরিমাণ অর্থ আইসিটি রফতানি করে আয় করতে চাই; যা হবে মোট জিডিপির ৫ শতাংশ। দেশে এখন ৭ হাজার ইন্টারনেট বেইজড ইম্প্লয়ার রয়েছে। মানব সম্পদ উন্নয়নের স্বার্থে আমরা একে ২৫ হাজারে উন্নীত করতে চাই। এজন্য যুব সমাজকে প্রশিক্ষণের আওতায় আনা হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান, ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর কিমিয়াও ফেন ও ঢাকায় নিযুক্ত কানাডার হাইকমিশনার বেনইত পিয়েরে লারামি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা প্রযুক্তি আমদানি করতে চাই না। আমরা চাই প্রযুক্তির রফতানিকারক হতে। আমাদের তরুণ প্রজন্মের অনেক প্রতিভা আছে। উপযুক্ত প্রশিক্ষণ ও পৃষ্ঠপোষকতা পেলে এ দেশের উদ্যোক্তারা বিশ্ববাজারে প্রযুক্তি রফতানি করে দেশের অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ করতে পারবেন।

প্রতিযোগিতার এবারের আয়োজন বিষয়ে ইএটিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ মুবিন খান বলেন, প্রতিযোগিতার শুরুতে থাকবে শিক্ষার্থীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কার্যক্রম ও ধারণাপত্র সংগ্রহ। এবারে আগের চেয়ে বেশিসংখ্যক বিশ্ববিদ্যালয়ে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। যাচাই-বাছাই শেষে নির্বাচিত ধারণাপত্র নিয়ে শুরু হবে প্রতিযোগিতার মূল পর্ব।

প্রতিযোগিতার প্রথম পুরস্কার হিসেবে থাকছে ১০ লাখ টাকা। পাশাপাশি বিজয়ীদের জন্য রয়েছে উদ্যোক্তা হওয়ার সুযোগ।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.