দেশের শিল্পখাতের উন্নয়নে বিনিয়োগে আগ্রহী চীন

china20160525115440বাংলাদেশের শিল্পখাতের উন্নয়ন ও দক্ষতা বাড়াতে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে চীন। বুধবার শিল্প মন্ত্রণালয়ে বৈঠককালে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুকে এ আগ্রহের কথা জানান দেশটির রাষ্ট্রদূত মা মিং কিয়াং।

মা মিং কিয়াং বলেন, চীন বাংলাদেশে শিল্প-কারখানা স্থানান্তরের পাশাপাশি বাংলাদেশ থেকে এসব কারখানায় উৎপাদিত পণ্য আমদানি করবে। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ শুল্কমুক্ত রফতানির সুযোগ পাবে বলেও জানান তিনি।

চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, শিল্পখাতে জামা, জ্যাকেট, মোজা, শাড়ি, টাই, জুতা, নির্মাণ সামগ্রীসহ বহুমুখী পণ্য উৎপাদনের সুযোগ রয়েছে। চীনের উদ্যোক্তারা এসব পণ্য উৎপাদনের লক্ষ্যে বাংলাদেশের পাটশিল্পখাতে বিনিয়োগ করতে চান। এছাড়াও কৃষি যন্ত্রপাতি, কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ ও সার উৎপাদনেও চীন বিনিয়োগ করবে।

এসময় শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু দেশের শিল্পখাতে বিনিয়োগের আগ্রহের জন্য রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, চীনা উদ্যোক্তারা পাট শিল্পের পাশাপাশি বাংলাদেশের চিনিকল ও নিউজ প্রিন্ট কাগজকলের আধুনিকায়নে বিনিয়োগ করতে পারে। এক্ষেত্রে সরকার প্রয়োজন অনুযায়ী জমি বরাদ্দ দিতে প্রস্তুত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

আমু বলেন, চীনা উদ্যোক্তারা অর্থনৈতিক অঞ্চলে ভারি শিল্পখাতে বিনিয়োগের পাশাপাশি এর বাইরেও হালকা প্রকৌশল শিল্পখাতে বিনিয়োগ করতে পারে। তিনি বাংলাদেশে গাড়ি উৎপাদন শিল্পে বিনিয়োগের জন্য রাষ্ট্রদূতের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এ লক্ষ্যে বাংলাদেশি রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান প্রগতি ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের সাথে চীনের গাড়ি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান যৌথভাবে উদ্যোগ নিতে পারে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

এসময় শিল্পসচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া , বিসিআইসি’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইকবালসহ শিল্প মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশে অবস্থিত চীনা দূতাবাসের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.