সিনেটরদের ভোটে যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিম বিদ্বেষী নারী কংগ্রেস সদস্য বহিষ্কার

গতকাল বৃহস্পতিবার মুসলিম বিদ্বেষী এক নারী কংগ্রেস সদস্যকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি সভায় দুটি কমিটি থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

মার্জুরি টেইলর গ্রেইন নামক ওই কংগ্রেস সদস্য সিনেটরদের ভোটে বহিষ্কার হন। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্জুরি টেইলর গ্রেইন নামক ওই কংগ্রেস সদস্য নভেম্বরের নির্বাচনের আগে অসংখ্যা উষ্কানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন। যা দেশেটির আইন-শৃঙ্খলার জন্য হুমকি তৈরি করে। কোনো বিশ্বাসযোগ্য তথ্য-উপাত্ত ছাড়াই ডেমোক্র্যাটদের বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র তত্ত্বের অভিযোগ তোলেন মার্জারি। এ ছাড়া নানা সময়ে মুসলিমদের নিয়ে বর্ণবাদমূলক মন্তব্যের অভিযোগও ছিল তার বিরুদ্ধে।

বিবিসি জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার যখন মার্জুরিকে বহিষ্কারে ভোট অনুষ্ঠিত হয়, তার আগে নিজের ভুল স্বীকার করেন তিনি। তবে তাতে মন গলেনি বাকি সিনেটরদের। এমনকি দলের ১১ সিনেটর তাকে বহিষ্কারের পক্ষে ভোট দেয়।

ফলে প্রতিনিধি পরিষদে ২৩০-১৯৯ ভোটে তাকে শিক্ষা ও বাজেট পরিকল্পনা কমিটি থেকে বহিষ্কার করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গরাজ্য জর্জিয়াকে প্রতিনিধিত্ব করা এ নারী কংগ্রেস সদস্য মার্জুরি টেইলর কখনো ন্যান্সি পেলোসিকে মাথায় গুলি করে হত্যা, কখনো বা বারাক ওবামাকে ফাঁসিতে ঝোলানোর জন্য মঞ্চ প্রস্তুত রয়েছে এমন পোস্টে নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন এবং সেখানে নিজে মন্তব্য করে তাতে উষ্কানি দিয়েছেন।

এ ছাড়া যখন ২০১৮ সালে দেশটির মধ্যবর্তী নির্বাচনে কয়েকজন মুসলিম সিনেটর জয় পায়, তখন এর প্রতিক্রিয়া জানাতে মার্জুরি টেইলর বলেন- এ নির্বাচনের মাধ্যমে আমাদের দেশ আবারও মধ্যযুগের অন্ধকারের দিকে যাত্রা শুরু করলো।

মুসলিম বিদ্বেষী এ নারী কংগ্রেস সদস্যকে বিস্তর অভিযোগের বোঝা মাথায় নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ দুটি কমিটি থেকে বিদায় নিতে হলো।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.