করোনার নতুন ধরনের অপ্রতিরোধ্য বিস্তার ব্রাজিলে

করোনার নতুন ধরনের অপ্রতিরোধ্য বিস্তারে ব্রাজিলে সংক্রমণ ও মৃত্যুর রেকর্ড হচ্ছে। ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যান বলছে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ২২ লাখ ২৭ হাজার ১৭৯। এর মধ্যে মারা গেছে ৩ লাখ ১ হাজার ৮৭ জন। তবে দেশটিতে ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছে ১ কোটি ৬ লাখ ৮৯ হাজার ৬৪৬ জন।

দেশটিতে বর্তমানে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১২ লাখ ৩৬ হাজার ৪৪৬। এছাড়া আাশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে ৮ হাজার ৩১৮ জন। গত এক সপ্তাহে দেশটিতে প্রায় প্রতিদিনই মৃত্যুর রেকর্ড হয়েছে। এছাড়া প্রায় এক সপ্তাহে ৫ লাখের বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে।

চলতি বছরের শুরুর দিকে ব্রাজিলের বন্যভূমি মানাউস শহর করোনাভাইরাসের কেন্দ্রস্থলে পরিণত হয়। শহরটির হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেন ফুরিয়ে যায়। সেখানকার সংকটের প্রাণঘাতী পরিণতি বিশ্বকে স্তম্ভিত করে দেয়। দুই মাসের ব্যবধানে করোনা মহামারির ভয়াবহতার পরিপ্রেক্ষিতে অক্সিজেন-সংকট ব্রাজিলের জাতীয় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরার খবরে বলা হয়েছে, চলতি মার্চ মাসে ব্রাজিলের করোনা পরিস্থিতির এতই অবনতি হয়েছে যে একে বিপর্যয়কর অবস্থা বলা হচ্ছে। করোনার সংক্রমণের মুখে মানাউসে অক্সিজেনের যে সংকট দেখা দিয়েছিল, তা এখন দেশটির অন্যত্রও দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় হাসপাতালগুলোতে বিপর্যয় নেমে এসেছে। অক্সিজেন সঙ্কট, অপর্যাপ্ত ওষুধ এবং হাসপাতালে রোগীর চাপ বাড়ায় আগামী দিনগুলোতে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে।

দেশটির ২৬টি রাজ্যের প্রায় প্রতিটিতে ইন্টেন্সিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) রোগীর চাপ বেড়ে গেছে। হাসপাতালে পর্যাপ্ত বিছানা এবং ওষুধের অভাবে হাসপাতালের মেঝেতেই অনেক রোগীর মৃত্যু হচ্ছে। এছাড়া অক্সিজেনের অভাবেও বহু রোগী প্রাণ হারাচ্ছেন।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.