শ্রীবিজয়া এয়ারের বিধ্বস্ত বিমানের ভয়েস রেকর্ডার উদ্ধার

ইন্দোনেশিয়ায় শ্রীবিজয়া এয়ারের বিধ্বস্ত বিমানের ককপিটের ভয়েস রেকর্ডার (সিভিআর) উদ্ধার করা গেছে।
গতকাল বুধবার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কয়েক মাস পানিতে থাকা সত্ত্বেও এটা ভালো অবস্থায় রয়েছে।
সাগরের তলদেশে মাটির এক মিটার গভীর থেকে এই রেকর্ডার উদ্ধার করা হয়েছে। ওই রেকর্ডার থেকে তথ্য উদ্ধার করতে আরো সপ্তাহখানেক লাগতে পারে।
কর্তৃপক্ষ আশা করছে, ব্ল্যাক বক্স তথা ভয়েস রেকর্ডার থেকে পাওয়া তথ্য ওই দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে ধারণা দেবে।
ইন্দোনেশিয়ার জাতীয় পরিবহন নিরাপত্তা কমিটির প্রধান সোয়েরজান্তো জাহজোনা বলেন, ‘আমরা আত্মবিশ্বাসী যে এটার তথ্য আমরা ডাউনলোড করতে পারব।
এটা ছিল খড়ের গাদায় সুঁই খোঁজার মতো।
সিভিআর ছাড়া বিমান দুর্ঘটনার কারণ খুঁজে বের করা কষ্টসাধ্য হতো।’
কর্তৃপক্ষ জানায়, সাগরের মাটি খোঁড়ার কার্যক্রমের শেষ দিনে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তারা সিভিআরটি খুঁজে পায়।
গত মাসে এক প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদনে জানানো হয়, দুর্ঘটনার আগেই ক্রুরা ওই উড়োজাহাজের থ্রটল সিস্টেম কাজের অনুপযুক্ত বলে জানিয়েছিলেন।
এমনকি শেষ ফ্লাইটের আগে বেশ কয়েকবার এর মেরামতও করা হয়।
গত ৯ জানুয়ারি ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তা থেকে ওড়ার কয়েক মিনিটের মধ্যে তিন হাজার মিটার উঁচু থেকে সাগরে আছড়ে পরে শ্রীবিজয়া এয়ারের বোয়িং ৭৩৭-৫০০।
এতে বিমানের ৬২ আরোহীর সবাই নিহত হন।
তখন থেকে দুর্ঘটনার কারণ জানতে ব্ল্যাক বক্স উদ্ধারের কাজ চলছিল।
হাজারো দ্বীপপুঞ্জের দেশ ইন্দোনেশিয়া যোগাযোগের জন্য ব্যাপকভাবে বিমানের ওপর নির্ভরশীল।
সম্প্রতি দেশটিতে একের পর এক বিমান দুর্ঘটনা ঘটছে এবং প্রাণহানি ঘটছে।
২০১৮ সালের অক্টোবরে বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স বিমান দুর্ঘটনায় ১৮৯ জন নিহত হয়। ওই দুর্ঘটনার পর বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স মডেলের বিমান নিয়ে বিশ্বজুড়ে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.