বিদেশী পর্যটকদের ফিরিয়ে আনার পরিকল্পনা করছে ইউরোপ

ইইউ কমিশন সোমবার বিদেশী পর্যটকদের জন্য ভ্রমণে বিধিনিষেধ লাঘব করার পরামর্শ দিয়েছে।
নতুন পরিকল্পনার আওতায়, কমপক্ষে দুই সপ্তাহ আগে যিনি ইইউ-অনুমোদিত ভ্যাকসিনের শেষ ডোজ পেয়েছেন তাকে ভ্রমণ করার অনুমতি দেয়া হবে।

গত কয়েক মাসে বহু দেশই নিয়ম করেছে, করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট থাকলে, তবেই প্রবেশাধিকার দেয়া হবে বিদেশিদের। কিছু কিছু দেশের সীমান্ত সম্পূর্ণ বন্ধ।
এ বার নতুন নির্দেশিকা জারি করতে চলছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।
টিকাকরণ সম্পূর্ণ হলে তবেই প্রবেশে অনুমতি।
ইইউ-র অন্তর্গত ইউরোপের ২৭টি দেশ। সাতটি দেশ বাদে, বাকি বিশ্বের প্রবেশ নিষেধ এই দেশগুলিতে।
গত বছর জুলাই মাস থেকে এই নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে।
এ বার কিছুটা লঘু করা হচ্ছে সেই বিধি।
ইউরোপীয় কমিশন জানিয়েছে, ব্লকের বাইরের কোনও দেশ থেকে ইইউ-এ ঢুকতে হলে সম্পূর্ণ টিকাকরণ চাই।
২৭টি দেশের এই ব্লককে মহামারি থেকে রক্ষা করতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ইইউ। বিশেষ করে যখন মিউট্যান্ট স্ট্রেনের আতঙ্কে ত্রস্ত গোটা বিশ্ব।

সোমবার প্রকাশিত নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, ‘টিকাকরণ সম্পূর্ণ হয়েছে, এমন ব্যক্তিদের ইইউ-এ ঢুকতে অনুমতি দেবে ব্লকের সদস্য দেশগুলি।
তবে দু’টি শর্ত রয়েছে। ১) ইইউ-এ প্রবেশের অন্তত ১৪ দিন আগে টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিতে হবে। ২) ইইউ-র ছাড়পত্র রয়েছে, এমন সংস্থার ভ্যাকসিন নিতে হবে ওই ব্যক্তিকে। ইইউ-এ টিকাকরণে ছাড়পত্র পাওয়া সংস্থাগুলি হল, বায়োএনটেক-ফাইজার, অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজ়েনেকা, জনসন অ্যান্ড জনসন এবং মডার্না।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.