অস্ত্র তুলে নিলেন মিয়ানমারের বিউটি কুইন

প্রসাধনী সরঞ্জাম নয়, অত্যাধুনিক রাইফেল হাতে তুলে নিলেন ২০১৩ সালে থাইল্যান্ডে প্রথম মিস গ্র্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল বিউটি প্রতিযোগিতায় মিয়ানমারের প্রতিনিধিত্বকারী হার্ট হেট হেট।
দেশের দুর্দিনে গ্ল্যামার জগতকে বিদায় জানিয়ে গভীর জঙ্গলে অবস্থান নিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি নিজের টুইটারে বন্দুক হাতে একটি ছবি পোস্ট করেছেন ৩২ বছরের ওই তরুণী।
তার ফেসবুকে প্রোফাইলে তিনি লেখেন, “লড়াই করার সময় এসেছে।
আপনার হাতে অস্ত্র, কলম, কি-বোর্ড বা টাকা যাই থাকুক না কেন, তা দিয়ে গণতন্ত্র ফেরানোর লড়াইয়ে যোগ দিন।
সবাই সহযোগিতা করলে তবেই এই বিপ্লব সফল হবে।”

এছাড়াও টুইটারে এক পোস্টে তিনি চে গুয়েভারার একটি উক্তি উল্লেখ করে বলেন, বিপ্লব তো আর গাছে ধরা আপেল নয় যে পাকবে আর পড়বে, বিপ্লব অর্জন করতে হয়। আমরা অবশ্যই জিতব।

২০১৩ সালে থাইল্যান্ডে ‘প্রথম মিস গ্র্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল’-এ ৬০জন প্রতিযোগীকে পরাজিত করে সেরা সুন্দরীর খেতাব জয় করেছিলেন তিনি।
এবার দেশের সেনাশাসকদের বিরুদ্ধে সশস্ত্র লড়াই চালানোর উদ্দেশ্যে এক বিদ্রোহী সংগঠনে যোগ দিয়েছেন তিনি। তার এহেন কাজে প্রশংসার ঝড় বয়ে গিয়েছে নেটদুনিয়ায়।

 

গত ফেব্রুয়ারি মাসে অভ্যুত্থান ঘটিয়ে মিয়ানমারের ক্ষমতা নিজের হাতে নেয় জান্তা সরকার। এর পর থেকেই দেশজুড়ে শুরু হয়েছে বিক্ষোভ।
গণতন্ত্র ফেরানোর ডাক দিয়ে রাস্তায় নেমেছে হাজার হাজার মানুষ।
পালটা অভিযান শুরু করেছে সেনাবাহিনী। এপর্যন্ত ফৌজের গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় ৭০০জন গণতন্ত্রকামী।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.