ইনসেপ্টাকে চীনের করোনা টিকা তৈরির অনুমতি, বাংলাদেশেই তৈরি হবে টিকা

ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডকে চীনের করোনার টিকা সিনোভ্যাক তৈরির অনুমতি দিয়েছে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর।
এ মাসেই কোম্পানিটি টিকা উৎপাদন শুরু করবে। সোমবার (১৭ মে) বেলা ১১টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করবে অধিদপ্তর।

অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মাহবুবুর রহমান বলেন, উৎপাদনে সক্ষমতা আছে এমন তিন চারটি কোম্পানি আমাদের কাছে আবেদন করেছিল।
আমরা বিভিন্ন খুঁটিনাটি বিষয় দেখে ইনসেপ্টাকে টিকা উৎপাদনের অনুমতি দিয়েছি।
এ মাসেই তারা কাজ শুরু করবে।

২৮ এপ্রিল চীনের করোনা ভাইরাসের টিকা সিনোফার্মের জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দেয় ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর।
ওই দিন অধিদপ্তরের এক সভা শেষে এ অনুমোদন দেওয়া হয়।
এর মধ্যে ৫ লাখ ডোজ টিকা উপহার দিয়েছে চীন।

গত দুই মাসে দেশে টিকার কোনো চালান আসেনি। কবে নাগাদ টিকার চালান আসতে পারে, তা কেউ বলতে পারছে না।
চুক্তির পর ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে এ পর্যন্ত দুটি চালানে ৭০ লাখ ডোজ টিকা বাংলাদেশ পেয়েছে গত জানুয়ারি এবং ফেব্রুয়ারি মাসে।
এছাড়া ভারত সরকার উপহার হিসেবে দিয়েছে ৩৩ লাখ ডোজ টিকা।

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ৩ কোটি ডোজ টিকা আনতে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে গত বছরের ৫ নভেম্বর যে চুক্তি হয়েছিল তাতে বলা হয়, প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশে ৩ কোটি ডোজ টিকা রপ্তানি করবে এবং সে অনুযায়ী প্রতি মাসে ৫০ লাখ ডোজ পাওয়ার কথা ছিল।
কিন্তু বাংলাদেশ সেই প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী টিকা পাচ্ছে না। অথচ টিকা দেবে বলে অগ্রিম দেড় কোটি ডোজ টিকার মূল্য বাবদ ৫১০ কোটি টাকা আগেই নিয়েছে সেরাম ইনস্টিটিউট।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.