যেকোনো পদক্ষেপ নিতে তুরস্ক প্রস্তুত, ওআইসির বৈঠকে তুরস্ক

ওআইসির বৈঠকে ফিলিস্তিনি ভাই-বোনদের রক্ষার জন্য আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সব পদক্ষেপে নেতৃত্ব অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে তুরস্ক।

জেরুজালেম ও গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি আচরণের কারণে দ্বি-রাষ্ট্রীয় সমাধান অসম্ভব হয়ে পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু।

ফিলিস্তিনে ইসরাইলের বর্বর হামলার বিষয়ে বিবৃতি দিতে ব্যর্থ হওয়ায় জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদেরও সমালোচনা করেছেন তিনি। খবর টিআরটি আরবির।

রোববার ফিলিস্তিন পরিস্থিতি নিয়ে ওআইসির সদস্য রাষ্ট্রগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের জরুরি ভার্চুয়াল বৈঠকে অংশ নিয়ে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এসময় কয়েকটি আরব দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করায় বিষয়টির সমালোচনা করেন তিনি।

মেভলুত কাভুসোগলু বলেন, বর্ণবাদী নীতি অনুসরণ করার কারণে ইসরাইলের পক্ষে আন্তর্জাতিক সমর্থন হ্রাস পাচ্ছে বলে আমরা দেখছি, তবে এ সময়ে ইসরাইলের সঙ্গে কয়েকটি মুসলিম দেশের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার কারণে আমরা প্রতিবাদ কতটুকু গুরুত্ব পাবে?

বৈঠক শেষে এক টুইট বার্তায় তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ফিলিস্তিনের জন্য আমাদের ঐক্য এবং দৃঢ়তা দেখানোর সময় এসেছে। উম্মাহ আমাদের নেতৃত্বের জন্য অপেক্ষা করছে। প্রয়োজনীয় যেকোনো পদক্ষেপ নিতে তুরস্ক প্রস্তুত রয়েছে।

ফিলিস্তিনে চলমান নৃশংসতার জন্য ওআইসির নির্বাহী কমিটির জরুরি বৈঠকে ইসরাইলকে এককভাবে দায়ী করা হয়েছে বলেও তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন।

আরও খবর
আপনার কমেন্ট লিখুন

Your email address will not be published.